ফুটবলারদের বান্ধবীরা

বিনোদন ডেস্ক : রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। বিশ্বকাপ জ্বরে ভুগছে পৃথিবীর সব ফুটবলপ্রেমী। আসর মাতাতে প্রস্তুত বিশ্বের নামি-দামী ফুটবলাররা। তারা যখন মাঠে খেলবেন, পৃথিবীর কোটি মানুষের চোখ থাকবে সেদিকে। এর বাইরেও বিশেষ একজনের চোখ কিন্তু এই ফুটবলারদের জন্য বয়ে নিয়ে আসবে অনুপ্রেরণা। গ্যালারি থেকে তাদের উৎসাহ ফুটবলারদের জন্য বিশেষ কিছু। কেননা তারাও হাজারো ভক্তের সঙ্গে গ্যালারিতে বসে খেলা দেখবেন, উৎসাহ দেবেন প্রিয়জনকে। বলছিলাম ফুটবলারদের স্ত্রী বা মেয়েবন্ধুদের কথা।

আদিল রামি ফরাসি ডিফেন্ডার। বয়স ৩২। তিনি মন দিয়ে বসে আছেন ৫০ ছুঁইছুঁই পামেলা অ্যান্ডারসনকে। ১৮ বছর বয়সের ব্যবধান তাদের প্রেমে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি।

জর্জিনার সঙ্গে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর ডেট ২০১৬ থেকে। মডেল জর্জিনা ভালো নাচতে পারেন। এখন নাচাচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানোকে।

পিলার রুবিও ও স্পেনের খেলোয়াড় রামোজের সম্পর্ক বেশ পুরনো। এখনও দুজন চুটিয়ে একে অপরকে ভালোবেসে যাচ্ছেন। মাস তিনেক আগে পিলার মা হয়েছেন তৃতীয়বারের মতো।

এই জুটিকে পরিচয় করিয়ে দেয়া বোকামি| জেরার্ড পিকে এবং শাকিরা। শাকিরার ‘ওয়াকা ওয়াকা’ এখনও ভালোবাসে মানুষ। এই প্রেমিক জুটির দুই সন্তান।

আমিন গালস মডেল। মিস ওয়ার্ল্ডের খেতাব জিতেছেন ২০১৪ সালে। কোন ফাঁকে মন জিতে নিয়েছেন জার্মানির খেলোয়াড় মেসুত ওজিলের বুঝতেই পারেননি। দুজনকে প্রায়ই একসঙ্গে দেখা যায়।

২০১২ সালে ইকুয়েডরের বিপক্ষে মেসি গোল করে বলটি জার্সির ভেতর ঢুকিয়ে নেন, যা তার মেয়েবন্ধুর গর্ভবতী হওয়ার ইঙ্গিত দেয়। বন্ধুর নাম অ্যান্তোনেলা রকুজ্জো। মেসি রকুজ্জোর বন্ধন এখনও অটুট।