পাকিস্তানে ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুড়িয়ে দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলের স্বায়ত্তশাসিত এলাকা গিলগিট-বালতিস্তানে বালিকা বিদ্যালয়সহ অন্তত ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুড়িয়ে দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা।

বৃহস্পতিবার (২ আগস্ট) রাতে তালেবান অধ্যুষিত খাইবার পখতুনখওয়া প্রদেশের পার্শ্ববর্তী দিয়ামের জেলার স্কুলগুলোতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এতে স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।দিয়ামের জেলার পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট রায় আজমল বলেন, পুলিশ জানতে পেরেছে কমপক্ষে ১২টি স্কুলে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। যার মধ্যে অর্ধেকের বেশি বালিকা বিদ্যালয়। রাতভর স্কুলগুলো আগুনে পুড়েছে।অনেক স্কুলে বই বের করে তাতেও আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় বলে জানান রায় আজমল।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা মুহাম্মদ বাশির বলেন, ভোর হওয়ার আগে আগে চিলাস শহরের পাশ্ববর্তী স্কুলগুলোতে আগুন দেওয়া হয়। তবে তেমন কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

স্থানীয় বাসিন্দা ও সাংবাদিকদের বরাত দিয়ে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, রোনায়ে এলাকার একটি বালিকা বিদ্যালয় ও আর একটি প্রতিষ্ঠানে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে।
এর আগেও ২০০৪ ও ২০১১ সালে দিয়ামের বালিকা বিদ্যালয়সহ বেশ কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয় উগ্রপন্থীরা। গিলগিট-বালতিস্তানের মধ্যে সবচেয়ে শিক্ষার হার কম দিয়ামের জেলায়। এছাড়া পাকিস্তানের শিক্ষার হারে সর্বনিম্ন ১০ জেলায় রয়েছে দিয়ামের। এ জেলায় শিক্ষায় মেয়েদের প্রবেশের হারও অনেক কম। দিয়ামের জেলার মোট শিক্ষার্থীর মাত্র ২০ শতাংশ মেয়ে।