বরিশালে সাংবাদিকের নামে ডিজিটাল আইনে মামলা

বরিশাল ব্যুরো : গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে কটুক্তি ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ন্যাক্কারজনক পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে বরিশালে মোহনা টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান ও স্থানীয় দৈনিক সকালের বার্তা পত্রিকার সম্পাদক-প্রকাশক শামীম আহসানের বিরদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার (৫ ডিসেম্বর) মাঝরাতে স্থানীয় দৈনিক আজকের বার্তা পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক মোশারফ হোসেন রাষ্ট্রের পক্ষে বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শামীম আহসান ওরফে মো: শামীম আহসান শেখ একজন গুজব রটনাকারী, মৌলবাদি সংগঠনের সমর্থক ও দেশদ্রোহী লোক। সম্মানিত ব্যক্তিবর্গকে অসম্মান করে রাষ্ট্রের সুনাম ক্ষুন্ন করা বিতর্কিত সাংবাদিক শামীমের নেশা ও পেশা। এধরনের কাজের সাথে তার সিন্ডিকেটের কতিপয় ব্যক্তি জড়িত বলে জানা যায়।

আসামি শামীম আহসান গণতান্ত্রিক সরকারের বর্তমান মন্ত্রী, উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ও বিচার বিভাগ সম্পর্কে কুৎসা, কটুক্তি রটনা করে দেশ এবং বহি:বিশ্বের বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করে। এরই ধারাবহিকতায় শামীম তার ফেসবুক ওয়ালে একটি স্ট্যাটাস দেয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বর্ষীয়ান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে কটুক্তি করে ন্যাক্কারজনক পোস্ট দেয়। যাহা যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

আরো পড়ুন>> বরিশালে যার সাথে যার জমবে লড়াই

এ কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাসের পরপরই কমেন্টের মাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। পাশাপাশি স্ট্যাটাসদাতার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ারও দাবি জানান তারা। তার এধনের স্টাটাসে বর্ষীয়ান অর্থমন্ত্রীসহ ক্ষমতাসীন সরকারে ও রাষ্ট্রের মর্যাদা ক্ষুন্ন হয়।

অর্থমন্ত্রীকে নিয়ে মানহানিকর লেখনী ইন্টারনেটে বাংলাদেশসহ বহি:বিশ্বের লক্ষ লক্ষ লোক দেখেছে ও পড়েছে। ফলে ডিজিটাল বিন্যাস মানহানিকর তথ্য সম্প্রচার করে জাতির মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করে এবং আইনশৃংখলার অবনতি ঘটার উপক্রম হয়।

শামীম এর পূর্বেও অনেক খ্যাতনামা বর্ষীয়ান সাংবাদিকসহ অন্যান্য গুণী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধেও মানহানিকর তথ্য প্রকাশ করে বলেও মামলায় উল্লেখ করা হয়।

স্বাআলো/এম