যবিপ্রবির ক্যালেণ্ডারে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃত

প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃত

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (যবিপ্রবি) জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি বিকৃতভাবে উপস্থাপন করে ক্যালেন্ণ্ডার ছাপানো হয়েছে। এনিয়ে কর্মকর্তা, কর্মচারী, শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োক্যামেস্টি বিভাগের এক শিক্ষক জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান দায়িত্বশীলরা বঙ্গবন্ধুর প্রতি বেশ উদাসিন। গত বছরের ডেস্ক ক্যালেণ্ডারেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে আপত্তিকরভাবে উপস্থাপন করা হয়েছিলো। যা অত্যন্ত নিন্দনীয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়,বরাবরের মতো চলতি বছরের জন্য যবিপ্রবির ডেক্স ক্যালেণ্ডার ছাপানো হয়েছে। ক্যালেণ্ডারের মে মাসের পাতায় ভিসি অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেনের দায়িত্ব গ্রহণের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনের একটি ছবি ছাপানো হয়। কিন্তু ছবিটির উপরে থাকা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ছিদ্র করে স্পাইরাল করা হয়েছে। এর আগে ২০১৮ সালের ক্যালেণ্ডারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবির ওপর ইংরেজিতে ভিসি প্রফেসর.ড.আনোয়ার হোসেনের নাম লিখে রাখা হয়। ফলে বঙ্গবন্ধুর মুখের অধিকাংশই ঢাকা পড়ে।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি নিয়ে একই ভুলের বার বার হওয়ায় অনেকে মনে করছেন ঘটনাটি পরিকল্পিত। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনে থাকা একটি চক্র পরিকল্পিতভাবে এমন ঘটনা বার বার ঘটাচ্ছে বলে মনে করছেন অনেকে। তবে চাকরি হারানো বা হয়রাণির ভয়ে তারা মুখ খুলতে চাইছেন না।

আরো পড়ুন>> আন্দোলনে উত্তাল যবিপ্রবি, পুলিশ মোতায়েন

তারা বলছেন,‘বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে অসম্মান করা মানে এদেশের স্বাধীনতাকে অসম্মান করা। স্বাধীনতাকে অসম্মানকারীদের কোন অবস্থায় ক্ষমা করা যায় না। তাই পরিকল্পিতভাবে যারা এ ক্যালেণ্ডার প্রকাশ করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন তারা।

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে নৌকা অপসারণের অভিযোগ তুলে অধ্যাপক ইকবাল কবির জাহিদের বহিস্কারের দাবি আজও বিক্ষোভ করেছে ছাত্রলীগ। একই সাথে ক্যালেণ্ডারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি বিকৃত করার দায়ে ভিসি প্রফেসর ড.আনোয়ার হোসেনের পদত্যাগ দাবি করেছে তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়রা আজমিরা এরিন বলেন, শিক্ষার্থীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট ছয় দফা দাবিতে আমরা ক্যাম্পাসে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করছি। বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি বিকৃতির বিষয়টির দায় ভিসি স্যার এড়াতে পারেন না। এজন্য আমরা তার পদত্যাগ দাবি করছি। এছাড়া ক্যালেণ্ডার তৈরির সাথে জড়িতদের শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।

যোগাযোগ করা হলে যবিপ্রবির রেজিস্ট্রার ইঞ্জিনিয়ার আহসান হাবিব বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ বিভাগে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন।

সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) হায়াতুজ্জামান মুকুল জানান, বিষয়টি কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিতে  আসার পর সংশ্লিষ্ট জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুর রশিদকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। এছাড়া, প্রকাশিত ক্যালেণ্ডারটি প্রত্যাহার করে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

স্বাআলো/এম

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র বিকৃত করা ছবিগুলো নিউজ পোর্টাল স্বাধীন আলো দপ্তরে রয়েছে।