সহপাঠীর উত্ত্যক্তে বাধা দেওয়ায় মারধর : আহত ৪

অশ্লীলতা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা : শিক্ষা মানবজীবনের অন্যতম অর্জন। সময়ে সময়ে সেই শিক্ষার মাঝেও দেখা যায় অশ্লীলতা। যার প্রতিবাদ করলেও হতে হয় লাঞ্চিত, অপমানিত। এমনটাই হয়েছে জাহাঙাগীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে।

সহপাঠীকে উত্ত্যক্তের ঘটনায় বাধা দিতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের কয়েকজন শিক্ষার্থী। উত্যক্তের অভিযোগ ওঠা ব্যক্তিরাও এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

গত বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এক ছাত্রীসহ আহত চার শিক্ষার্থী গতকাল বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

আহতেরা অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী। প্রত্যক্ষদর্শীর জানান, গত বুধবার রাতে বটতলার একটি দোকানে কয়েকজন শিক্ষার্থী বসে রাতের খাবার খাচ্ছিলেন। এ সময় নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের সোহান, আকাশ ও তামীম, মার্কেটিং বিভাগের শাওন, প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের মাহিদসহ প্রথম বর্ষের ১০-১২ শিক্ষার্থী ছাত্রীদের উদ্দেশে নানা অশালীন মন্তব্য করতে থাকেন। অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থীরা এতে বাধা দিলে তাঁদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়।

খাওয়া শেষ করে হলের দিকে যাওয়ার সময় ১০ থেকে ১২ জন যুবক অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থীদের ওপর ওপর হামলা চালান। এ সময় তাঁদের বেধড়ক পেটানো হয়। পরে আহত শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

আরো পড়ুন >>>যুবসমাজের মানসিক ভারসাম্য কেড়ে নিচ্ছে মোবাইল গেমস

বৃহস্পতিবার যোগাযোগ করা হলে সোহান বলেন, ‘আমি এসব কিছু জানি না। বটতলায় কী হয়েছে তা–ই তো জানি না। আমরা তো কাল (বুধবার) বন্ধুর জন্মদিন পালন করেছি।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ফিরোজ উল হাসান বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। শিগগিরই শৃঙ্খলাবিধি অনুসারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

স্বাআলো/এইসএম