স্কুলের মধ্যেই মাদক সেবন করেন প্রধান শিক্ষক!

জেলা প্রতিনিধি, ঝালকাঠি : ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার পূর্ব কয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান রানার বিরুদ্ধে নিয়মিত স্কুলের অভ্যন্তরে মাদক সেবনের অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে স্থানীয় এলাকাবাসী ও  অভিভাবকদের দায়ের করা এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোজাম্মেল ও সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা অনিতা রানী দত্ত সরেজমিনে ওই স্কুলে গিয়ে প্রাথমিক তদন্ত সম্পন্ন করেছেন। তাতে তারা অভিযাগের সত্যতা পেয়েছেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, ওই শিক্ষক স্কুলের ভেতরে ও বাহিরে নিয়মিত মাদক (গাঁজা) সেবন করেন। এতে বিদ্যালয়ের শিক্ষক পরিবেশ নষ্ট ও কোমলমতি শিশুদের ক্ষতি হচ্ছে। তাকে বারবার সতর্ক করা হলেও তিনি মাদক সেবন বন্ধ না করে

উল্টো এলাকাবাসী ও অভিভাবকদের বিভিন্ন ভাবে ভয়-ভীতি দেখান। এ ঘটনায় ২২ জন অভিভাবক ও এলাকাবাসী টিওর কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষিকা বলেন, মনিরুজ্জামান রানা স্কুলের অন্যান্য শিক্ষকদের তার চাকর মনে করেন। তিনি আমাদের সাথে এমন আচরণ করেন যা কোনো সুস্থ্ স্বাভাবিক মানুষ করে না।

পূর্ব কয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নুরুজ্জামান মৃধা বলেন, শিক্ষক মনিরুজ্জামান রানা দীর্ঘদিন ধরে নেশায় আসক্ত।

অভিযোগের ব্যাপারে শিক্ষক মনিরুজ্জামান রানা বলেন, ‘আমাকে ডিস্টার্ব করবেন না। আমি কোনো বক্তব্য দিবো না।’

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোজাম্মেল বলেন, ‘তদন্তে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। শীঘ্রিই ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে এ তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানো হবে।’

স্বাআলো/ডিএম