শহীদ মিনার শূন্য বরগুনার অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

শহীদ মিনার

জেলা প্রতিনিধি, বরগুনা : যাদের আত্মত্যাগের বিনিময় আজ বাঙ্গালী মায়ের ভাষায় কথা বলে। তাদের ঋন কোন দিন শোধ করা যাবেনা। তাদের স্মরণে বাঙ্গালীরা প্রতি বছর পালন করে ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। কিন্তু বরগুনা জেলার আমতলী ও তালতলী উপজেলার ৩৩৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোন শহীদ মিনার নেই। সব মিলিয়ে মাত্র ৫ টি শহীদ মিনার রয়েছে আমতলী ও তালতলীতে। শিক্ষার্থীরা অস্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করে দিবসগুলো পালন করছে।

শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাগেছে, দু’উপজেলায় ৩৩৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এর মধ্যে আমতলী ১৫৯ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৩৮ টি মাধ্যমিক, ২৯ টি মাদ্রাসা ও ৫ টি কলেজ এবং তালতলীতে ৭৪ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১৬ টি মাধ্যমিক, ১২ টি মাদ্রাসা ও ২ টি কলেজে শহীদ মিনার নেই।

ভাষা আন্দোলনের বহু বছর অতিক্রান্ত হলেও সরকারি কিংবা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে আজ পর্যন্ত আমতলী ও তালতলী উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে কোনো শহীদ মিনার গড়ে ওঠেনি। শিক্ষার্থীরা কলাগাছ ও বাঁশ দিয়ে অস্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করে সেখানে পুষ্পমাল্য অর্পণের মাধ্যমে বিভিন্ন দিবস পালন করছে।

আমতলী এম.ই. মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসির উদ্দিন জানান, ‘সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ করা হলে কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা ভাষা আন্দোলনের ব্যাপারে জানতে আরও আগ্রহ প্রকাশ করবে। শহীদ মিনার না থাকায় শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকরা এ দিবস সম্পর্কে তেমন একটা গুরুত্ব দেন না।’

আরো পড়িুন >>>গৌরীপুরে ভিসা ব্যবসায়ী সৌদি নাগরিকের লাশ উদ্ধার

আমতলী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আকমল হোসেন জানান, ‘শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের কৌশল অধিদপ্তরে তালিকা পাঠিয়েছি কিন্তু এখনো কোন সারা পাইনি।’

স্বাআলো/এইসএম