এক মাসের মধ্যে মাদক ও অস্ত্র মামালার তদন্ত শেষ করার নির্দেশ

মাদক ও অস্ত্র মামলার তদন্ত এক মাসের মধ্যে শেষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা: মাদক ও অস্ত্র মামলার তদন্ত এক মাসের মধ্যে শেষ করার জন্য কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এক মাসের মধ্যে তদন্তে ব্যর্থ হলে সংশ্লিষ্ট আদালতের কাছে তদন্ত শেষ না করার কারণ ব্যাখ্যা করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া উচ্চ পদস্থ একজন পুলিশ কর্মকর্তার তত্ত্বাবধানে মাদক ও অস্ত্র মামলার তদন্ত কর্মকর্তাদের তদারকিতে মনিটরিং সেল গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পুলিশের মহাপরিদর্শক ও সকল জেলা পুলিশ সুপারকে এ আদেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) নরওয়ে প্রবাসী ড. নুরুল ইসলাম শেখকে মাদক মামলায় চার সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়ে বিচারপতি জাহাঙ্গির হোসেন ও বিচারপতি  রিয়াজ উদ্দিন খানের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

একইসঙ্গে ওই মাদক মামলার বাদী গাজীপুরের জয়দেবপুর থানার এসআই আব্দুল হালিমকে ওই থানা থেকে দুই সপ্তাহের মধ্যে প্রত্যাহারের জন্য গাজীপুরের এসপিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ওই এসআইকে ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকাণ্ডের বিষয়ে সতর্ক করেছেন হাইকোর্ট।

আরো পড়ুন>>> মাদক ব্যবসায়ীদের শাস্তির দাবিতে গোপালগঞ্জে মানববন্ধন

জামিন শুনানিকালে আদালত দেখতে পান, নুরুল ইসলাম একজন নরওয়ে প্রবাসী এবং পিএইচডি ডিগ্রি হোল্ডার। নুরুল ইসলামকে চার সপ্তাহের জামিন দিয়ে দশ পিস ইয়াবা উদ্ধারের মামলায় তাকে অভিযুক্ত করায় আদালত বিষয়টি তদন্ত করে গাজীপুরের এসপিকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের আগেই গত ১০ ডিসেম্বর এ মামলার চার্জশিট থেকে নুরুল ইসলামকে বাদ দিয়ে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। পরবর্তীতে গাজীপুরের এসপির তদন্ত প্রতিবেদন পেয়ে মামলাটির বাদী জয়দেবপুর থানার এসআই মো. আব্দুল হালিকে তলব করেন হাইকোর্ট।

স্বাআলো/আরবিএ