ধর্ষণের ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলায় দুই পুলিশ কর্মকর্তা ক্লোজ

জেলা প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার: নিজ ঘরে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনায় যথাসময়ে যথাযথ দায়িত্ব পালন না করায় শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) সোহেল রানাকে ক্লোজ করা হয়েছে। একই সাথে মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তাকেও ক্লোজ করা হয়েছে।

মৌলভীবাজার পুলিশ সুপার শাহ জালাল জানান, ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে অনেক পরে। এছাড়া মামলা হওয়ার পরেও পুলিশের পক্ষ থেকে সময়মতো যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এজন্য শ্রীমঙ্গল থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানাকে শোকজকরা হয়েছে। একই সাথে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই দেলোয়ার হোসেনকেও ক্লোজড করা হয়েছে।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার উপজেলার সিন্দুর খান ইউনিয়নের বেলতলী গ্রামে আব্দুল গফুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করে একই এলাকার মুন্না আহমেদ নামে এক যুবক।

শিশুটির বাবা জানান, ওইদিন বিকেলে কাজ শেষে বাড়ি ফিরে তিনি মুন্নাকে ঘরে দেখতে পান। তাকে দেখে মুন্না দৌড়ে পালিয়ে যায়। এরপর মেয়েকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। এখনও সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পরে শুক্রবার মামলা হওয়ার পর শনিবার বিকেলে র‌্যাব অভিযুক্তকে উপজেলার ভুনবীর গ্রাম থেকে আটক করে শ্রীমঙ্গল থানায় হস্তান্তর করে।

স্বাআলো/ডিএম