দুই শ্যালকের মাঝে পড়ে ভগ্নিপতির অকাল মৃত্যু

লাঠির আঘাত

জেলা প্রতিনিধি, ফরিদপুর : ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে দুই শ্যালকের মারামারি ঠেকাতে করতে এসে দুর্ঘটনাবশত লাঠির আঘাতে নিহত হয়েছেন ভগ্নিপতি সেকেন্দার শেখের (৪০)।

গতকাল রবিবার দুপুর ১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে উপজেলার চতুল ইউনিয়নের হাসামদিয়া গ্রামে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

সেকেন্দার জামালপুর জেলার বকশিগঞ্জ উপজেলার ভাটিকেলোকি হারা গ্রামের বাসিন্দা। গত সাত বছর আগে বোয়ালমারী উপজেলার হাসামদিয়া গ্রামের মৃত জালাল মোল্লার মেয়ে রেখা বেগমের সাথে বিয়ে হয় তার। এ দম্পতির দুটি ছেলে রয়েছে।

সেকেন্দারের স্ত্রী রেখা বেগম জানান, গত ১৫ দিন আগে সেকেন্দার শশুর বাড়ি বেড়াতে আসেন। রবিবার দুপুর ১ টার দিকে রেখার দুই ভাই জাকির মোল্লা (৪০) ও রবিউল মোল্লা (৩০) পারিবারিক বিষয় নিয়ে মারামারি শুরু করলে সেকেন্দার ঠেকাতে যায়। ঠেকানোর সময় বাশের লাঠির বাড়িতে আহত হন তিনি।

তাৎক্ষণিক ভাবে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সৌমিত্র সরকার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আরো পড়ুন >>>এবার লক্ষ্মীপুরে তরুনীর শরীরে অগ্নিকাণ্ড, ঢামেকে ভর্তি

বোয়ালমারী থানার পরিদর্শক সহিদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে। তবে সেকেন্দারের মৃত্যুর পর তার দুই শ্যালক জাকির ও রবিউল পালিয়ে গেছেন। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

স্বাআলো/এইসএম