বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ও দেশী জাল টাকাসহ চক্রের সদস্য আটক

জাল চক্রের সদস্য আটক

রংপুর ব্যুরো : রংপুর নগরীর পীরজাবাদ জুগিটারীতে অভিযান চালিয়ে বাংলাদেশী ও ভারতীয় প্রায় সাড়ে ১২ লাখ টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় সেখানে জাল টাকা তৈরির সরঞ্জামসহ চক্রের  এক সদস্য আলী হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়, দীর্ঘ দিন ধরে তারা এইভাবে জাল টাকা তৈরি করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে আসছিল।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় কোতয়ালী থানা মেট্রো ক্যাম্পাসে এক সংবাদ ব্রিফিং এ বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন রংপুর মেট্রোপুলিশ কমিশানার আবদুল আলীম মাহমুদ। তিনি বলেন, ওই জাল টাকা প্রস্তুতকারী চক্রটি দেশের বিভিন্ন স্থানে পবিত্র ঈদকে সামনে রেখে জাল টাকা তৈরি করে সরবরাহ করার জন্য মজুত করেছিল। তাদের বিভিন্ন এজেন্টের মাধ্যমে তারা ওই টাকা সরবরাহ করে আসছিল। তারা গ্রেফতারকৃত আলী হোসেনের কাছে আরও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছেন, তাতে জানা গেছে দেশে তাদের আরও বড় জাল টাকা তৈরি চক্র সক্রিয় রয়েছে। দেশের বাংলাদেশের টাকা নয় তারা ভারতীয় রুপিও তৈরি করে সীমান্তবর্তী এলাকায় সরবরাহ করে আসছিল।

আরো পড়ুন>> নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিযোগিতায় রংপুরের ব্যবসায়ীরা

আজ বুধবার তাদের মজুত জাল টাকার মধ্যে বাংলাদেশী ১১লাখ ৫০ হাজার টাকা ও ভারতীয় ৪লাখ ৬০ হাজার রুপি উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সব ভারতীয় রুপির মধ্যে ২হাজার, ১ হাজার ও ৫শ’ রুপির নোট রয়েছে। বাংলাদেশের ১হাজার ও ৫শ’ টাকার নোট আছে। এ সময় আলী হোসেনের বাড়ি থেকে জাল টাকা উদ্ধারের সাথে জাল টাকা তৈরির বিপুল পরিমান রাসায়নিক দ্রব্যসহ যন্ত্রপাতি, ৪হাজার আসল বাংলাদেশী টাকা এবং ২টি মোবাইল সেট উদ্ধার করেছে।

পুলিশ জানায় আলী হোসেনের গ্রামের বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী টাপুর চর গ্রামে। সে ওই গ্রামের মৃত আবেদ আলীর ছেলে। তার বিরুদ্ধে পুলিশ কোতয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। থানা হাজতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

স্বাআলো/এম