হবিগঞ্জে রাস্তায় ধান রাখা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৩৫

৩৫ জন আহত

জেলা প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ : রাস্তায় ধান রাখা নিয়ে হবিগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ৩৫ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ১৪ জনকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার কালনী নোয়াবাদ গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ সহিদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ওই গ্রামের মলাই মিয়া তার জমি থেকে কেটে আনা কিছু ধান রাস্তায় শুকানোর জন্য রাখেন। এসময় একই গ্রামের স্বপন মিয়াসহ বেশ কয়েকজন একই রাস্তা দিয়ে ধান ভাঙানোর মেশিন নিয়ে যাচ্ছিলেন। রাস্তায় ধান রাখার কারণে মেশিনটি নিয়ে যাওয়া যাচ্ছিলো না। এসময় মলাই মিয়া ও স্বপনের মধ্যে এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন খবর পেয়ে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে অন্তত ৩৫ জন আহত হন।

আরো পড়ুন >>>হাসপাতালে মারপিটের শিকার সন্তানের বাবাকে এবার পিটালেন ইউপি সদস্য

আহতদের মধ্যে মলাই মিয়া (৬০), স্বপন মিয়া (২৮), সোহেল মিয়া (৩৫), মিলান বেগম (৪০), মোস্তফা আলী (১৫), ছানু মিয়া (৩০), গুণি মিয়া (৬০), কামরুল মিয়া (৩০), আল আমীন (১৮), উজ্জ্বল মিয়া (১৭), সামছু মিয়া (৩০), ফুল্লাস বেগম (৩০), হায়দার আলীকে (৩৬) হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, বর্তমানে ওই এলাকার পরিস্থিতি শান্ত আছে। ফের সংঘর্ষ এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

স্বাআলো/এইসএম