তিন বছরেও মোফাজ্জলের ভাগ্যে জোটেনি প্রতিবন্ধী ভাতা

রংপুর ব্যুরো: রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার দামোদরপুর আমরুলবাড়ি গ্রামের মোফাজ্জল হোসেন শারীরিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। তবুও তিনি অন্যের বাড়িতে শ্রম দিয়ে যান। সেখান থেকে যা পান তা দিয়ে কোনরকমে বেঁচে আছেন। তিনি প্রতিবন্ধী বলে পরিবারের অন্যরাও খুব একটা তার খোঁজখবর নেননা।

এ অবস্থায় ২০১৬ সালের এক জরিপে তাকে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীর তালিকাভুক্ত করা হয়। কিন্তু ওই পর্যন্তই। আজ পর্যন্ত তার ভাগ্যে প্রতিবন্ধী ভাতা জোটেনি। মোফাজ্জলের আদি নিবাস একই উপজেলার  আমরুলবাড়ি বুড়াপাড়া গ্রামে। বর্তমানে তিনি পৌরশহরের সাহাপুর গ্রামের বিভিন্ন বাসায় কাজ করে সেখানেই রাত্ যাপন করেন।

কেন তিনি প্রতিবন্ধী ভাতা পাননি এমন প্রশ্নের জবাবে মোফাজ্জল হোসেন অস্পষ্ট স্বরে বলেন, সবাই টাকা চায়। তাই হয়নি।

এব্যাপারে দামোদরপুর ইউপির ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হাসিনুর রহমান বাবলু বলেন, মোফাজ্জল হোসেনের কাছ থেকে কে টাকা চেয়েছে তা’ খোঁজ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।  তিনি বলেন, ওই ব্যক্তি পৌর শহরে বসবাস করায় তাকে ভাতা দেয়া সম্ভব হয়নি ।

দামোদরপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল হক সরকার বলেন, মোফাজ্জল হোসেন কেন প্রতিবন্ধী ভাতা পেলেননা তা’ বোধগম্য নয়। তবে এবারে বরাদ্দ পাওয়ার সাথে সাথেই ওই ব্যক্তিকে ভাতা প্রদান করা হবে।

স্বাআলো/আরবিএ

.

Author