যবিপ্রবিতে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হলেন সেই পাঁচ শিক্ষার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর :  যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অন্যায় বহিষ্কারাদেশের শিকার সেই পাঁচ শিক্ষার্থী ক্যাম্পাসে ফিরলেন। সুপ্রিমকোটের আপিল বিভাগ বিশ্ববিদ্যালয়ের করা বহিষ্কারাদেশ অবৈধ উল্লেখ করে তা স্থগিত করার পর আজ সোমবার ক্যাম্পাসে ফেরেন তারা। এসময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীসহ সাধারণ শিক্ষার্থীরা তাদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেন।
জানা যায়, চলতি বছর ২০ এপ্রিল যবিপ্রবি থেকে তিনজনকে আজীবনসহ আট শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করে প্রশাসন। এতে সংক্ষুব্ধ পাঁচ শিক্ষার্থীর পক্ষে আজীবন বহিষ্কৃত ফিশারিজ এ্যান্ড মেরিন বায়োসায়েন্স বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী ও শেখ হাসিনা হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়রা আজমিরা এরিন সুপ্রিমকোটের হাইকোর্ট বিভাগে রিট পিটিশন দায়ের করেন। ১৪ মে শুনানি শেষে হুমায়রা আজমিরা এরিন, একরামুল কবির দ্বীপ, রোকনুজ্জামান, মোতাসসিন বিল্লাহ ও হারুন-অর-রশিদের বহিষ্করাদেশের ওপর ছয় মাসের জন্য স্থগিত আদেশ দেয়া হয়। এই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিমকোর্টে আপীল করেন যবিপ্রবির ভিসি প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন। তবে ৩০ জুন শুনানী শেষে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি বেঞ্চ হাইকোর্টের রায় বহাল রাখেন। এই রায়ের ফলে ওই শিক্ষার্থীদের যবিপ্রবিতে লেখাপড়া চালিয়ে যাওয়ার সব বাধা দূর হয়। এরপর আজ সোমবার ক্যাম্পাসে যান তারা।
আরো পড়ুন>> যশোরে যুবকের লাশ উদ্ধার

বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেস্ক ক্যালেন্ডারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি আপত্তিকরভাবে উপস্থাপন, ক্যাম্পাসে থাকা নৌকা প্রতীক ভেঙ্গে ফেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ে মাত্রাতিরিক্ত ল্যাব রিটেক ফি আদায়সহ সাধারণ শিক্ষার্থীদের ন্যায়সঙ্গত দাবি আদায়ে আন্দোলন করায় তাদের বহিষ্কার করে প্রশাসন।

স্বাআলো/এম

.

Author