স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে জীবন দিলেন স্বামী

জেলা প্রতিনিধি, রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে পদ্মা নদীতে গোসল করতে গিয়ে স্বামী-স্ত্রী নিখোঁজ হয়েছেন। রবিবার দুপুর ২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

নিখোঁজ স্বামী ইমন (২২) মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলার তৌফিকচর গ্রামে এবং আঞ্জুমানয়ারার (১৮) বাড়ী রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইজারা পাড়া গ্রামে, তারা ঢাকায় বসবাস করতেন। মাত্র কয়েকদিন আগে একে অপরকে ভালোবেসে বিয়ে করেন তারা।

জানা যায়, তিনদিন আগে আঞ্জুমানয়ারার চাচাতো বোনের বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দে আসেন তারা। পরে রবিবার দুপুর ২টার দিকে তারা পদ্মা নদীতে গোসল করতে নামেন। একপর্যায়ে পদ্মার তীব্র স্রোতের টানে ভেসে আঞ্জুয়ারা তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন ইমন। একপর্যায়ে দু’জনই ডুবে যান।

প্রত্যক্ষদর্শী আফসানা আক্তার জানান, তারা সবাই বিয়ের অনুষ্ঠানে এসেছেন। রবিবার দুপুর ২টার দিকে বিয়ে বাড়ি থেকে তারা ১০/১২ জন মিলে পদ্মা নদীতে গোসল করতে যান। এসময় একটি ফেরি তাদের পাশ দিয়ে চলে গেলে যে ঢেউয়ের সৃষ্টি হয় এতে প্রথমে আঞ্জুমানয়ারা কিছুটা নদীর ভেতরে চলে যায়। আঞ্জুমানয়ারা যখন নদীর তীব্র স্রোতে ভেসে যাচ্ছিল তাকে উদ্ধার করতে ইমন এগিয়ে যায়। এরপর তারা দুজনই মুহূর্তের মধ্যে নদীর তীব্র স্রোত ও প্রচন্ড ঘুর্ণীপাকের মধ্যে পড়ে তলিয়ে যান।

এদিকে বিয়ের অনুষ্ঠানে এসে নবদম্পতি পদ্মায় ভেসে যাওয়ার ঘটনায় বিয়ে বাড়ির আনন্দ এক নিমিষেই আহাজারিতে পরিণত হয়েছে। স্বজনদের চোখের পানিতে এলাকার পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে।

আরো পড়ুন>>> ১৪ ঘণ্টা পরও উদ্ধার হয়নি তুরাগে পড়া প্রাইভেটকার

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন কর্মকর্তা আবদুর রহমান বলেন, দৌলতদিয়ার ৩ নম্বর ফেরিঘাট এলাকায় বিয়ে বাড়ির দাওয়াতে যান ইমন ও আঞ্জুমানয়ারা দম্পতি। রবিবার বেলা দেড়টার দিকে বিয়ে বাড়ি থেকে তারাসহ কয়েকজন বাড়ির কাছে পদ্মা নদীতে গোসল করতে যান। স্রোতের তোড়ে স্বামী-স্ত্রী দুজন ভেসে যান। স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধারে তৎপরতা চালালেও তাদের পাওয়া যায়নি। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল উদ্ধার অভিযান শুরু করে। এখনও তাদের পাওয়া যায়নি।

স্বাআলো/এএম