গণপিটুনির কোনো ঘটনায় ‘ছেলেধরা’র সম্পৃক্ততা মেলেনি: আইজিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা: সন্দেহের জেরে দেশজুড়ে গণপিটুনির কোনো ঘটনাতেই ছেলেধরার সম্পৃক্ততা মেলেনি বলে জানিয়েছেন আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

গুজব প্রতিরোধে বৃহস্পতিবার থেকে দেশজুড়ে সচেতনতা সপ্তাহ পালন করা হবে বলেও জানান তিনি।

বুধবার পুলিশ সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়ে আইজিপি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে গত কয়েকদিনে আটজনকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। দেশজুড়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির প্রত্যেকটি ঘটনা আমরা বিশ্লেষণ করেছি। কোনো ঘটনাতেই ধৃত আহত ব্যক্তি কিংবা মৃত ব্যক্তিদের কেউই অপহরণকারী ছিলেন না।

গত ১৮ জুলাই নেত্রকোণায় রবিন নামে এক ব্যক্তির কাছে সজীব নামের এক ছেলের কাটা মাথা পাওয়া যায়। পরে গণপিটুনিতে রবিন নিহত হয়েছেন। মাদকাসক্ত রবিন তার স্ত্রীকেও একাধিকবার হত্যার চেষ্টা করেছিলেন, এ কারণে তার স্ত্রী চলে গেছে। নিহত শিশু সজীবের মরদেহ ময়নাতদন্তে দেখা গেছে, তাকে বলৎকার করা হয়েছিল। পারিপার্শ্বিক সব ঘটনা বিশ্লেষণ করে নিশ্চিত হওয়া গেছে, বলৎকার করার সময় প্রতিরোধ বা জানাজানির ভয়ে ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সজীবকে খুন করা হয়েছিল।

সাভারে এবং নারায়ণগঞ্জে দুইজন বুদ্ধি ও বাক প্রতিবন্ধীকে পিটিয়ে মারা হলো। বাড্ডায় এক মাকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হলো।

আইজিপি বলেন, আমি দেশবাসীকে স্পষ্ট করে বলতে চাই, এটি গুজব এবং স্রেফ গুজব। কোনো ঘটনাতে ছেলেধরার অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার থেকে দেশজুড়ে সচেতনতা সপ্তাহ পালন করা হবে। সপ্তাহজুড়ে পুলিশের প্রতিটি সদস্য সব স্টেক হোল্ডারদের কাছে যাবেন। প্রশিক্ষিত সদস্যরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাবেন, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলবেন।

স্বাআলো/আরবিএ

.

Author