বাঁচানো গেল না সেই মৎস্য ব্যবসায়ীকে

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর: যশোরের ভাতুরিয়া গ্রামে ইমিরুজ হোসেন (২৮) নামে গুলিবিদ্ধ সেই মৎস্য ঘের ব্যবসায়ীকে শেষ পর্যন্ত বাঁচানো গেলো না। আজ বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে গুলিবিদ্ধ হবার পর তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিকেল পৌণে তিনটার দিকে তিনি মারা যান।

ইমরুজের চাচা ইউনুস জানান, যশোর সদর উপজেলার হরিণার বিলে ইমরুজের বড় একটি মাছের ঘের রয়েছে। ওই ঘেরে আজ বুধবার সকালে চাঁচড়ার কয়েকজন সন্ত্রাসী ভ্রাম্যমাণ পতিতা নিয়ে যায়। সেখানে ইমরুজের ছোট ভাই ইসরাজুল ইসলাম তাদের অসামাজিক কার্যকলাপে বাধা দেয়। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ফিরে যায়।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ৪-৫টি মোটরসাইকেল যোগে ৭-৮ জন সন্ত্রাসী ইমরুজের ঘেরে যায় এবং ইসরাজুলকে কোপাতে উদ্যত হয়। ইমরুজ ছোট ভাইকে বাঁচাতে গেলে সন্ত্রাসীরা তার পেছন থেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ মারে। এসময় তিনি পড়ে গেলে তারা এক রাউন্ড গুলি করে। গুলিটি বুকের বাম পাশে বিদ্ধ হলে তার মৃত্যু হয়েছে মনে করে সন্ত্রাসীরা চলে যায়।

ছোট ভাই ইসরাজুল স্থানীয়দের সহযোগিতায় দুপুর দেড়টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। তার অবস্থা আশংকা হওয়ায় তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়। কিন্তু জেনারেল হাসপাতাল ত্যাগের আগেই বিকেল পৌণে তিনটার দিকে ইমরুজের মৃত্যু হয়।

যশোর কোতোয়ালি থানার এসআই মোখলেজ্জামান গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনা জানতে পেরে হাসপাতালে যান। এসময় সন্ত্রাসীদের আটকের জন্য পুলিশের পৃথক কয়েকটি টিম অভিযান শুরু করেছে বলে দাবি করেন।

স্বাআলো/আরবিএ

.

Author