যশোরে ১৯ ডেঙ্গু রোগী হাসাপাতালে, একজনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর : যশোরে ১৯ জন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে। আশংকাজনক অবস্থায় একজনকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে। যশোর জেনারেল হাসপাতালে জ্বর নিয়ে ভর্তি হয়ে বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার পর চিকিৎসকরা ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হওয়ার বষিয়টি নিশ্চিত করেছেন।

যশোর জেনারেল হাসপাতালে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ডেঙ্গু জ্বরে রোগী হিসেবে সনাক্ত হয়েছেন, মণিরামপুর উপজলোর দাবুখালী গ্রামের আকিকুর রহমানের স্ত্রী নাজমা বেগম (৩১), যশোর সদর উপজেলার পুলেরহাট এলাকার আবুল কালাম আজাদের ছেলে সোহেল (২৫), রূপদিয়ার দেয়াপাড়ার মালেক মোল্যার ছেলে নওয়াব আলী (৪৫), যশোর শহরের ষষ্ঠীতলা পাড়ার আজির আলীর ছেলে ঢাকা ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার আলমগীর ফারুক (৪৫),  পোষ্ট অফিস পাড়ার বিশ্বজিতের ছেলে অভিজিত (২৫), বাঘারপাড়া উপজেলার খাজুরার মির্জাপুর এলাকার মিজানুর রহমানের ছেলে ইলিয়াস হোসেন (২৭), মণিরামপুর উপজেলার নইলে গ্রামের শাহিনুর রহমানের ছেলে আসিফ রায়হান (২৪)।

এর আগে যশোর জেনারেল হাসপাতালে আরো ১২ জন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হিসেবে সনাক্ত করেন হাসপাতালের চিকিৎসকরা। এর মধ্যে নড়াইল সদর উপজেলার সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসলাম খানের স্ত্রী রুকসানা পারভীন রানী (৫২) যশোর ইবনে সিনা হাসপাতালে গত ১৯ জুলাই শুক্রবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়।

এদিকে খাজুরা এলাকার ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত ইলিয়াস হোসেনকে বৃহস্পতিবার ঢাকায় রেফার করেছেন। তার অবস্থা আশংকাজনক বলে ডাক্তাররা জানিয়েছেন।

যশোরের ডেপুটি সিভিল সার্জন হারুণ অর রশিদ জানান, যশোরে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হিসেবে ১৯জনকে সনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে। ডেঙ্গুজ্বরের রোগীদের পৃথক ভাবে কেয়ার নেয়া হচ্ছে।  আক্রান্তরা কোন না কোন ভাবে ঢাকায় অবস্থান করেছে। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত মনে করে যশোরে গ্রামের বাড়িতে চলে এসে হাসপাতাল গুলোতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ জেনারেল হাসপাতালে বিভিন্ন সময়ে এ পর্যন্ত মোট ১৯ জনকে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত বলে সনাক্ত করা হয়েছে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।

স্বাআলো/এএম

.

Author