প্রশাসন শুধু বিএনপি নিধনেই ব্যস্ত : ফখরুল

রংপুর ব্যুরো : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সারা দেশের বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে ত্রাণ বিতরণ করার কাজ সরকারের কিন্তু সরকার আজ ব্যর্থ। অসহায় মানুষদের পাশে নেই সরকার। দেশের আইন শৃঙ্খলা ভেঙ্গে গেলে ছেলে ধরা আতঙ্ক থাকবেই। প্রশাসন শুধু বিএনপি নিধনেই ব্যস্ত। সাধারণ মানুষকে নিরাপত্তা দিতে পারেনা তাই দেশে ছেলে ধরা আতঙ্ক বিরাজ করছে।

আজ শনিবার দুপুরে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার পাটিকাপাড়া ইউনিয়নের তিস্তা পাড়ের বন্যার্ত পরিবারকে ত্রাণ বিতরণে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শত কষ্টের মাঝে আজ ত্রাণ নিয়ে হাজির হয়েছি। আজ যদি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে না থাকত তাহলে তিনি আপনাদের মাঝে এসে ত্রাণ বিতরণ করতেন।

ফখরুল বলেন, সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় বেআইনিভাবে তাকে ১৮ মাস ধরে আটক রাখা হয়েছে। এখন তিনি অত্যন্ত অসুস্থ। তার ডায়বেটিস। এ অসুস্থ অবস্থায় তিনি সঠিক চিকিৎসা পর্যন্ত পাচ্ছেন না। সরকার তাকে জোর করে আটকে রাখছেন। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে নেতা-কর্মীদের ভেদাভেদ ভুলে সংগঠিত হয়ে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবানও জানান তিনি।

আরো পড়ুন>> খালেদার শারীরিক অবস্থার অবনতি : ফখরুল

এসময় উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল মাহমুদ টুকু, কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন-মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু, বিএনপির কেন্দ্রীয় ক্ষুদ্র কুটির শিল্প সম্পাদক ও রংপুর মহানগর সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন, রংপুর জেলা সভাপতি সাইফুল ইসলাম, রংপুর মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু, রংপুর মহানগর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সামসুজ্জামান সামু, লালমনিরহাট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাক হাফিজুর রহমান বাবলা, রংপুর জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক বিএনপি নেতা শহিদুল ইসলাম শহীদ প্রমুখ।

এছাড়াও রংপুর, লালমনিরহাট ও কুড়িগ্রামসহ বিভিন্ন জেলা-উপজেলার বিএনপি এবং অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

স্বাআলো/এম