উন্নয়নের বিপ্লব ঘটলেও, বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীর জমির জটিলতা কাটেনি

হারুন উর রশিদ সোহেল, রংপুর ব্যুরো : আজ বুধবার কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, পঞ্চগড় ও লালমনিরহাটসহ দেশের ১১১টি ছিটমহল বিনিময়ের চতুর্থ বর্ষপূর্তি হলো। ২০১৫ সালের এই দিনে ছিটমহল বিনিময়ের মাধ্যমে মুক্তি পান ভারত-বাংলাদেশের ১৬২ ছিটমহলের প্রায় ৫০ হাজার মানুষ। স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেন তারা।

ছিটমহল বিনিময়ের ৪র্থ বর্ষ পূর্তিতে বিলুপ্ত ছিটমহলবাসী বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে দিয়ে দিবসটি পালন করছেন। এরই মধ্যে বিলুপ্ত ছিটহলগুলোতে দেয়া হয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগ। জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদানসহ নানা উন্নয়ন কার্যক্রম চলছে।

তবে ছিটমহলবাসীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তাদের জমির মালিকানা সংক্রান্ত মূল সমস্যা কাটেনি এখনো। ফলে জমি ক্রয় বিক্রয়সহ ভাগ বন্টনে দেখা দিয়েছে জটিলতা। তবে গেজেট সম্পন্ন হলে এ সমসার সমাধান হবে বলে আশা তাদের।

জানা গেছে, ছিটমহল বিনিময়ের পরপরই বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ১১১টি ছিটমহলে শুরু হয় সরকারি ও বেসরকারী উদোগে নানা উন্নয়ণমূলক কার্যক্রম। বিলুপ্ত ছিটমহলে বিদ্যুৎ সংযোগ, কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন, রাস্তাঘাট, সেতু-কালভার্ট নির্মান, বিদ্যালয় স্থাপন, জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদানসহ চোখে পড়ার মতো উন্নয়ন করা হয় ছিটমহলগুলোতে।

তবে সরকারের নানা উন্নয়ণমূলক কার্যক্রম চালু থাকলেও একমাত্র কৃষিকাজের উপর নির্ভরশীল এসব মানুষের অন্যতম সমসা জমির মালিকানা নির্ধারণ করা যায়নি এখনো।

জেলার ৫৯টি বিলুপ্ত ছিটমহলে ৩২৩৮ দশমিক ৭২ একর জমি রয়েছে। আর এসব জমির মালিকানা সংক্রান্ত খতিয়ান, মাঠ রেকর্ডের পর্চা, খারিজের কাগজ না পেয়ে ওয়ারিশদের মাঝে জমির ভাগ বন্টন বা জরুরী কোনো প্রয়োজনে জমি ক্রয় কিংবা বিক্রয় করা সম্ভব হয়ে উঠছে না । ফলে কৃষি নির্ভর ছিটমহলবাসীদের প্রতিনিয়ত জমি সংক্রান্ত জটিলতা পড়তে হচ্ছে।

লালমনিরহাট সদর উপজেলার বিলুপ্ত ভিতরকুটি ছিটমহলের বাসিন্দা আতাউর রহমান ও কবির হোসেন জানান, বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে ৩১ জুলাই চতুর্থ বর্ষপূর্তি উৎযাপন করছেন সাবেক ছিটমহলবাসী। তারা স্বাধীন দেশের নাগরিক হতে পেরে খুশি। তবে দ্রুত তাদের জমির সমস্যার সমাধান করা দরকার।

এ ব্যাপারে লালমনিরহাটের সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গেজেট প্রকাশ সম্পন্ন হলে জমির রেকর্ডগুলো জেলা প্রশাসকের নিকট হস্তান্তর করা হবে। রেকর্ড হস্তান্তর হলে ছিটমহলের বাসিন্দারদের জমি সংক্রান্ত যে সমস্যা আছে তা সমাধান হবে ।

স্বাআলো/ডিএম