মিয়া খলিফা সম্পর্কে অজানা কিছু তথ্য

ডেস্ক রিপোর্ট : মিয়া খলিফা নাম শুনলেই মনে হয় তিনি মুসলিম কিন্তু না, তাহলে তিনি কোন ধর্মের? এসব নিয়ে নানা বিতর্ক হয়েছে সংবাদ পত্রের পাতায়। মিয়া খলিফাকে নিয়ে অজানা কিছু তথ্য। জেনে নিন কিছু অজানা তথ্য যা জানলে আপনার ভুল ধারণা আর থাকবে না।

এখানে জেনে নিন এই মুহূর্তের তুমুল জনপ্রিয় মিয়া খলিফা সম্পর্কে কয়েকটি তথ্য:-

১। মিয়া ক্যালিস্টা নামে পরিচিত ছিল তার। অবশ্য পর্ন সিনেমায় নামটি বড়ই বেমানান। ১৯৯৩ সালে জন্মগ্রহণ লেবানন বংশোদ্ভুত ২৬ বছর বয়সী এই তরুণী মাত্র ৭ বছর বয়সে আমেরিকা পাড়ি জমান।

২। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর তার সমর্থনে ‘মিয়া খলিফা’ শিরোনামে একটি গান বের করে ইলেক্ট্রো-প ডুয়ো টাইমফ্লাইস। এখন তিনি স্বামী ও দুটো কুকুর নিয়ে মিয়ামিতে বাস করেন।

৩। ইতিহাসে গ্র্যাজুয়েশন করে একটি ফাস্ট ফুড রেস্টুরেন্টে কাজ করছিলেন মিয়া। পরে পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে একটি চাকরির আবেদন করেন। মুসলমান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পরে খ্রিষ্টান ধর্ম গ্রহণ করেন। এই পথে ক্যারিয়ার শুরুর পর থেকে পরিবারের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই তার।

৪। ওই ভিডিওর কল্যাণে অনলাইনে তাকে সার্চের হার ৫ গুণ বেড়ে যায়। এই সার্চের এক-পঞ্চমাংশ সম্পন্ন হয় লেবানন, সিরিয়া ও জর্ডান থেকে। লেবানিজ জাতীয় সংগীতের প্রথম লাইন নিয়ে একটি ট্যাটু আঁকানোর কারণেও সমালোচিত হন মিয়া।

৫। মিয়া জানান, ২০১৫ সালের প্রথম দিকে একটি বিতর্কিত ভিডিও প্রকাশ করেই সবার চেনা হয়ে যান তিনি। ওই ভিডিওর মাধ্যমেই পর্নহাবে সার্চ করা পর্ন তারকার শীর্ষে চলে আসেন তিনি। লেবানন ও অন্যান্য মুসলিম অধ্যুষিত দেশে তাকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়। মধ্যপ্রাচ্য থেকে জীবননাশের হুমকিও দেয়া হয় তাকে।

৬। ব্যাটম্যান পর্ন সংস্করণেও নায়িকার চরিত্রে দেখা গেছে মিয়াকে। সূত্র : ম্যানসওয়ার্ল্ড ইন্ডিয়া

স্বাআলো/এএম