বাসায় ঢুকে পুলিশকে কুপিয়ে জখম

জেলা প্রতিনিধি, শেরপুর : শেরপুর শহরের নতুন বাস টার্মিনাল এলাকার মিরগঞ্জ মহল্লার পুলিশ ফাঁড়ির এক এটিএসআই (সহকারী উপ-পরিদর্শক) আনোয়ারকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে দুর্বৃত্তরা।

আজ সোমবার সকালে আনোয়ারের ভাড়া বাসায় এই ঘটনা ঘটে। আহত আনোয়ার হোসেন গৌরীপুর পুলিশ ফাঁড়ির এটিএসআই হিসেবে কর্মরত। পরে তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

আরো পড়ুন>>>  খুলনায় নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

অন্যদিকে খবর পেয়ে ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীমসহ অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। ওই ঘটনায় বিকেলে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংক্ষিপ্ত প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, ঘটনাটি পুলিশ গুরুত্ব সহকারে নিয়েছে। একইসাথে চলছে তদন্ত ও অভিযান। প্রাথমিক পর্যায়ে প্রাপ্ত তথ্যের প্রেক্ষিতেও অনুসন্ধান চলছে।

জানা যায়, সোমবার সকাল ৯ টার দিকে শহরের নতুন বাস টার্মিনাল এলাকার গৌরীপুর পুলিশ ফাঁড়ির পাশেই আনোয়ার হোসেনের ভাড়া বাড়িতে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। ওইসময় তার বাড়ির অন্যান্য সদস্যরা কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়। তবে কারা, কি কারণে তার উপর হামলা হয়েছে, এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সে বিষয়ে পুলিশের বক্তব্য পাওয়া না গেলেও স্থানীয় সূত্র বলছে, রিপন নামে মাদক কারবারী এক যুবক ওই ঘটনা ঘটিয়েছে। এদিকে ওই ঘটনায় পার্শ্ববর্তী মীরগঞ্জ এলাকা থেকে রিপন নামে এক যুবকের মা ও স্ত্রী এবং মাদক কানেকশনে থাকা আরেক নারীসহ ৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। তবে ওই ঘটনায় বিকেল পর্যন্ত থানায় কোন মামলা দায়ের হয়নি।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন বলেন, ঘটনার বিষয়ে তদন্ত ও অভিযান চলছে। একইসাথে চলছে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি।

স্বাআলো/এসএ