১৪ বছর পর টাইটানিক নিয়ে নতুন ভিডিও প্রকাশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দূর্ঘটনায় পড়ে ১৯১২ সালে বিখ্যাত জাহাজ টাইটানিক ধ্বংসা হয়ে যায়। টাইটানিকের ধ্বংসাবশেষ পড়ে আছে আটলান্টিক মহাসাগরের তলায়। গত ১৪ বছরে কোনো ডুবুরি যাননি টাইটানিকের আশপাশে। সম্প্রতি প্রযোজনা সংস্থা আটলান্টিক প্রোডাকশনের উদ্যোগে একটি ডুবুরিদল এক সময়ের বিলাসবহুল এই জাহাজের ধ্বংসাবশেষের বর্তমান অবস্থা দেখে এসেছেন। ডুবুরিদলের তুলে আনা ছবি ও ভিডিও ব্যবহার করে টাইটানিক নিয়ে নতুন একটি প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ করবে আটলান্টিক প্রোডাকশন।

টাইটানিক বিষয়ক এক ইতিহাসবিদ সিবিএস নিউজে এক সাক্ষাৎকারে জানান, জাহাজের অবশিষ্টাংশের যে হারে ক্ষয়ে যাচ্ছে তা খুবই বেদনাদায়ক। তিনি আরো জানান, এরই মধ্যে পুরোপুরি নেই হয়ে গেছে জাহাজের কয়েকটি অংশ।

ডুবুরিদের তুলে আনা ভিডিওতে দেখা যায়, সাগরতলে লবণাক্ততা ও ব্যাকটেরিয়ার কারণে ক্রমেই ক্ষয়ে যাচ্ছে টাইটানিকের অবশিষ্টাংশ।

এই ভিডিও প্রকাশের পর যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সাবমেরিন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ট্রাইটন সাবমেরিন্স এক বিবৃতিতে বলেছে, নতুন ভিডিও দেখে জাহাজের ধ্বংসাবশেষের বর্তমান অবস্থা ভালোভাবে জানা যাবে। পাশাপাশি ধ্বংসাবশেষের ভবিষ্যত কী, সেটাও নিরূপণ করা সম্ভব হবে।

টাইটানিকের নতুন ভিডিও>>https://youtu.be/8urXiQCY4lU

স্বাআলো/এএম