হঠাৎ বিতর্কে রানু মণ্ডল

বিনোদন ডেস্ক : রেলস্টেশনের গায়িকা থেকে হুট করেই ভারতের সেলিব্রেটি বনে যাওয়া রানাঘাটের রানু মণ্ডল এবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের সমালোচনার মুখে পড়েছেন। যিনি তার পেছনে শ্রম দিয়েছেন তার প্রতি রানু যথেষ্ট সম্মান প্রদর্শন করেননি বলে মত সমালোচকদের।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রানুকে ভাইরাল করার পেছনে অন্যতম ছিলেন অতীন্দ্র। পেশায় তিনি ইলেকট্রিক্স টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ার। রানাঘাট স্টেশন দিয়ে তার নিত্য যাতায়াত। স্টেশন চত্বরে রানুর গান শুনে তিনি মুগ্ধ হয়েছিলেন। তার গান রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার দায়িত্ব সামলেছিলেন তিনিই। এবার যখন রানু সমস্যায় পড়লেন, আবারও অতীন্দ্রই এগিয়ে এলেন। সর্বত্র নিজের মোবাইল ফোনের নম্বরটাই দিয়ে দিলেন। রানুর সকল দরকারি ফোন এখন তার কাছেই আসে। এমনকি মুম্বাই যাওয়ার সময়ও তিনি রানু মণ্ডলকে আগলে নিয়ে গিয়েছিলেন।

আরো পড়ুন>>>   ‘তেরি-মেরি’ গেয়ে কত আয় করলেন রানু মণ্ডল

তবে সম্প্রতি রানু মণ্ডলকে প্রশ্ন প্রশ্ন করা হয়, এই যে অতীন্দ্রের মতো মানুষের দৌলতে তিনি এত জায়গায় যাচ্ছেন, তাকে নিয়ে তিনি কী বলবেন? সচরাচর এর উত্তরে লোকে বলে, ‘ভাল’। কিন্তু রানু তা বলেননি। উল্টে তিনি যা বলেছেন, তাতে বেশ চটেছেন নেটিজেনরা। রানু বলেছেন, ভগবানের দৌলতে যাচ্ছি। ওরা ভগবানের চাকর। আমি ওদের সাহায্যে যাচ্ছি না। ভগবানের সাহায্যে যাচ্ছি। ওরা ভগবানের চাকর হয়ে যাচ্ছে।

তার ওই উত্তরের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সমালোচকরা বলছেন, যে মানুষটা তাকে খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে দিয়েছে তাকেই কিনা রানু চাকর বলে সম্বোধন করলেন। এটা তার কাছ থেকে আশা করিনি।

স্বাআলো/এসএ