বিয়ের দাবিতে ৫ দিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে প্রেমিকা

জেলা প্রতিনিধি, বগুড়া : বগুড়ার শেরপুর উপজেলার শিখর গ্রামের বাসিন্দা সবুজের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে গত পাঁচদিন ধরে অনশন করছেন তার প্রেমিকা। বিয়ে না কারলে আত্মহত্যা করবেন বলে হুমকি দিয়েছেন ওই তরুণী।

জানা গেছে, উপজেলার ভাবীপুর ইউনিয়নের শিখর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুস সালামের ছেলে সবুজ মিয়া সিরাজগঞ্জে একটি কলেজে লেখাপড়া করেন। সেখানে কলেজের এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার।

গত শনিবার বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার প্রেমিকাকে ফোন করে নিজ বাড়ি ডেকে আনান সবুজ। সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা থেকে ওই তরুণী সবুজের বাড়ি এলেও পালিয়ে যান তিনি। পরে বিয়ের দাবিতে অনশনে বসেন তার প্রেমিকা।

এদিকে বিয়ে না করলে ধান কাটার কাস্তে দিয়ে গলা কেটে আত্মহত্যা করবেন বলে হুমকি দিয়েছেন ওই তরুণী। সবুজের বাড়ি গিয়ে দেখা গেছে, ঘরের বারান্দায় কাস্তে হাতে বসে আছেন তিনি। জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, ‘সবুজ আমাকে বাড়ি ডেকে এনে পালিয়ে গেছে। সে আমাকে বিয়ে না করলে এই কাস্তে দিয়ে গলা কেটে আত্মহত্যা করব।’

সবুজের বাড়ি আসার পর প্রেমিকাকে তার বাবা-মা মারধর করেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এ ঘটনায় স্থানীয় থানায় একটি অভিযোগও দায়ের করেছেন ওই তরুণী।

পালিয়ে থাকা সবুজের মোবাইলে কল দিলেও তা বন্ধ পাওয়া গেছে। তার বাবা-মার সঙ্গে কথা বলতে চাইলেও তারা রাজি হননি।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার ওসি হুমায়ুন কবীর বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বাআলো/এসএ