দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত যুবকের মৃত্যু

খুলনা ব্যুরো : খুলনার দিঘলিয়ায় দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত হায়বাত শেখ (৩০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন।  হায়বাত শেখে উপজেলার গাজীরহাট ইউনিয়নের পদ্মবিলা গ্রামের সত্তার শেখের ছেলে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে তিনি মারা যান। এর আগে সোমবার রাত ৯টায় হায়বাত বাড়ি ফেরার পথে দিঘলিয়ার পদ্মবিল গ্রামের সরদার বাড়ি খালের পাড়ের রাস্তায় ১০/১২জন দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মাথায় এবং পায়ে কুপিয়ে ফেলে রাখে। এ সময় এলাকাবাসী ধাওয়া করে আরিফ সরদারের ছেলে জসিম সরদারকে আটক করে। হায়বাতকে মুমুর্ষ অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। রাতে অবস্থা আরো অবনতি হলে তাকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।

আরো পড়ুন>> খুলনায় বন্ধুকযুদ্ধে বাহিনী প্রধানসহ চারজন নিহত

নিহত হায়বাতের চাচাতো ভাই স্থানীয় ইউপি সদস্য ইরান শেখ জানান, ৬ সেপ্টেম্বর হায়বাতের চাচা টিপু সুলতানকে এলাকার চিহিৃত সন্ত্রাসীরা দিনের বেলায় নির্মমভাবে হত্যা করে। ঐ ঘটনায় তার ছেলে আলমগীর বাদী হয়ে ৩২জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ৮/১০জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করে। মামলাটি হায়বাত দেখাশুনা এবং তদারকি করার কারণে মামলার পালাতক আসামিরা সংঘবদ্ধ হয়ে সোমবার রাতে তার উপর হামলা চালায়।

দিঘলিয়া থানার ওসি মানস রঞ্জন দাস বলেন, মোবাইল চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনার সূত্রপাত। নিহত হায়বাতের একটি মোবাইল চুরি হওয়ায় হামলাকারীদের একজনকে তিনি চোর অপবাদ দেওয়ায় তার উপর হামলা করে তারা।

স্বাআলো/এম