যুবলীগ কর্মী সোহাগ হত্যার আসামিদের প্রশ্রয় দাতা আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর : যশোরে যুবলীগ কর্মী সোহাগ হত্যা মামলার প্রধান আসামি ইয়াছিন মোহাম্মদ কাজলের বড় ভাই তরিকুল ইসলামকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। শনিবার ভোরে তার বাড়ি থেকে আটক করা হয়।

ডিবি পুলিশ জানায়, ডিবি পুলিশের ওসি মারুফ আহম্মদ, এসআই অরুন কুমার দাস, এসআই সোলায়মান আক্কাস, এসআই আব্দুল মালেক, এসআই শামীমসহ একদল পুলিশ শনিবার ভোরে যশোর শহরের কাজীপাড়া গোলামপট্টির বাসা থেকে তরিকুল ইসলামকে আটক করে।

যশোর ডিবি পুলিশের ওসি মারুফ আহম্মদ জানান, মামলার অন্যান্য আসামিদের স্বীকারোক্তিতে দেয়া তথ্য যাচাই বাছাই শেষে তরিকুলের সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়। তার বিরুদ্ধে মামলার আসামিদের মদদ দাতা ও আশ্রয় ও প্রশ্রয়ের অভিযোগ রয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে তরিকুল ইসলামকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আরো পড়ুন>> বেনাপোলে লিপিস্টিক ইমরানের স্ট্যাটাস : বিএনপি নেতার বোমা হামলার সাথে জড়িত !

প্রসঙ্গত. যশোর শহরের কাজীপাড়ার সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে যুবলীগ কর্মী শরিফুল ইসলাম সোহাগ ২০১৮ সালে ২৮ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১২টার দিকে প্রতিপক্ষের হাতে খুন হয়। এঘটনায় নিহতের ভাই ফেরদৌস হোসেন সোমরাজ ৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত পরিচয়ে ৫/৭জনের নামে মামলা করেন।

মামলায় এ পর্যন্ত ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি যশোর সদর উপজেলার খোলাডাঙ্গা এলাকার তাইজুল ইসলাম তাইজেল ২০১৮ সালের ১৩ অক্টোবর রাতে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়।

  স্বাআলো/এম