যবিপ্রবি’র ভর্তি পরীক্ষায় ৮০’র পরিবর্তে ৮১ প্রশ্ন, মেধাবীদের বাদ পড়ার শঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর : যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যায়ে ত্রুটিপূর্ণ প্রশ্নপত্রে ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে বিজ্ঞান অনুষদের এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। প্রশ্নপত্রে ৮০টি প্রশ্ন থাকার কথা থাকলেও ছিলো ৮১টি। ফলে বিভ্রান্তিতে পড়ে অনেক মেধাবীর শিক্ষার্থীর পরীক্ষা খারাপ হয়েছে।

আজ সকালে যবিপ্রবির ২০১৯-২০ সেশনের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়। সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত বিজ্ঞান অনুষদের প্রথম শিফটের পরীক্ষা হয়। এই প্রশ্নপত্রে ৩ নং দিয়ে দুইটি প্রশ্ন ও ৩ নং এর শেষের প্রশ্নটি ৫ নং দাগে আরো একবার দেয়া হয়েছে। এজন্য প্রশ্নপত্রে ৮০টি প্রশ্ন থাকার কথা থাকলেও রয়েছে ৮১টি। ফলে পরীক্ষা শুরুতেই পরীক্ষার্থীরা বেশ বেকায়দায় পড়েন। অনেকে না বুঝে এমআরও শিট পূরণ করেন। যারা প্রথম তিনটি প্রশ্ন বাদে সব প্রশ্ন ভুল উত্তর দিয়েছেন।

তবে এই ভুলকে বড় ধরনের ভুল বলে মনে করছেন না যবিপ্রবি কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়টির ভিসি প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, আমি শুনেছি প্রশ্নপত্রে একই প্রশ্ন দুই বার হয়েছে। এটা বড় কোন সমস্যা না। তবে এই ভুলের কারণে পরীক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে শিক্ষার্থীদের পক্ষে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। প্রয়োজনে ভুল প্রশ্নের জন্য নাম্বার পাবেন পরীক্ষার্থীরা।

আরো পড়ুন>>>বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতি, ক্ষমা চাইলেন যবিপ্রবি ভিসি

পরীক্ষায় অংশ নেয়া ময়মনসিংহ থেকে আসা সুমন আহমেদ  বলেন, প্রশ্নপত্র ভাল হয়েছে। কিন্তু সিরিয়ালে ভুল থাকায় এমআরও শিট পূরণে আমার ভুল হয়েছে।

রংপুর থেকে আসা পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান  বলেন, পরিবহন ধর্মঘটের মধ্যেও অনেক কষ্ট করে পরীক্ষা দিতে এসেছি। আমার প্রস্তুতিও ভাল ছিল। কিন্তু পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ভুলের কারণে শেষ পর্যন্ত পরীক্ষা ভালো হয়নি। বিষয়টি আমি প্রথমে বুঝতে পারিনি। যখন বুঝেছি তখন ৬০ টির বেশি প্রশ্নের উত্তর ভুল পূরণ করা হয়ে গেছে। তখন দায়িত্বরত শিক্ষকদের সাথে কথা বললেও তারা কোন সমাধান দিতে পারেননি। আর পরীক্ষা শেষ হওয়ার ১০ মিনিট আগে কর্তৃপক্ষ একটি নোটিশ দেন। তখন আর আমাদের কিছু করার ছিল না।

ভুক্তভোগী আরেক পরীক্ষার্থী সাব্বির আহমেদ বলেন, আমি নওগাঁ থেকে এসেছি। প্রশ্নপত্রে অসংগতির কারণে অনেক জানা প্রশ্নও ভুল হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, আজ বৃহস্পতিবার সকালে ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরে দুপুর সাড়ে ১২টায় ‘বি’ ইউনিট এবং বিকেল সাড়ে ৩টায় ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া আগামীকাল শুক্রবার সকাল ৯টায় ‘ডি’ ইউনিট, বেলা ১১টায় ‘ই’ ইউনিট এবং বিকেল সাড়ে তিনটায় ‘এফ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। ২৩ নভেম্বর ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর ২৭ নভেম্বর থেকে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে।

স্বাআলো/ডিএম