ইউনিয়ন আ’লীগের সম্মেলনে গোলাগুলি, পুলিশসহ আহত ১৫

জেলা প্রতিনিধি, লালমনিরহাট : লালমনিরহাটের পাটগ্রামে আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন সম্মেলনে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে তিন পুলিশ সদস্য রয়েছেন।

আজ সোমবার  বিকালে  শ্রীরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের সম্মেলন স্থলে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ফাঁকা গুলি ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আগামী ৯ ডিসেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন করতে জেলার প্রতিটি ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলায় দলীয় সম্মেলন চলছে। সোমবার বিকালে শ্রীরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলন আয়োজন করা হয়। ওই সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বলে প্রচার করা হয়।

কিন্তু সম্মেলন শুরুর আগে স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন ও পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাবুল অনুগতদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্য়ায়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এ সময় দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে। সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের অন্তত ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে নেয়া হয়। সংঘর্ষে ৩ জন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছে। এ ঘটনায় ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেন ও পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাবুলের সাথে যোগাযোগ করে তাদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন কুমার মোহন্ত জানান, সম্মেলনকে ঘিরে আওয়ামী লীগের বিদ্যমান দুইটি গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ এনেছে।

স্বাআলো/ডিএম