ট্রেনিং সেশনে নাগিন ড্যান্স, শিক্ষক বরখাস্ত ২ জনকে নোটিশ (ভিডিও)

নাগিন ড্যান্স (সাপের নাচ) দেখে বিয়ে ভেঙে দিয়েছেন কনে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কিছুদিন আগেই খবর বেরিয়েছিল, মাতাল বরের নাগিন ড্যান্স (সাপের নাচ) দেখে বিয়ে ভেঙে দিয়েছেন কনে। এবার শোনা যাচ্ছে, ট্রেনিং সেশনের বিরতিতে এই নাচ নেচে ফেঁসে গেছেন তিন শিক্ষক। একজনকে বরখাস্ত করা হয়েছে, দু’জনকে দেওয়া হয়েছে কারণ দর্শানোর নোটিশ।

দিন দশেক আগে ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থানে।

আজ শুক্রবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, শিক্ষকদের একটি ট্রেনিং চলাকালে বিরতির সময় মজা করে নাগিন ড্যান্সে অংশ নেন তিন শিক্ষক। তাদের মধ্যে একজন ছিলেন ওই ট্রেনিংয়ের প্রধান ট্রেনার।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাদের নাচের ভিডিও ভাইরাল হলে গত বুধবার আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে ওই ট্রেনারকে বরখাস্ত করে কর্তৃপক্ষ।

জালোরের জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা অশোক রোয়েশ্বল বলেন, যে শিক্ষক নাগিন ড্যান্সের আয়োজন করেছিলেন, আমরা তাকে বরখাস্ত করেছি ও অন্য দুই শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছি। কারণ তারা কাজে নতুন যোগদান করেছেন, হয়তো নিয়ম ঠিকমতো জানেন না। নাচে কোনো ক্ষতি নেই, কিন্তু আচরণবিধি তো মানা উচিত।

তবে নাচের কারণে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে এমন ব্যবস্থা নেওয়ায় কঠোর সমালোচনা করেছেন অনেকেই।

এক শিক্ষক বলেন, তারা শুধু অন্য শিক্ষকদের সঙ্গে বিরতির সময়টা উপভোগ করছিলেন। এতে অশালীন বা ক্ষতিকর কী আছে? সরকারি কর্মকর্তারা কি সহকর্মীদের সঙ্গে একটু ভালো সময় কাটাতে পারবেন না?

স্বাআলো/আরবিএ