নিরাপদ সড়কের দাবিতে মহাসড়কে শিক্ষার্থীরা

জেলা প্রতিনিধি, কক্সবাজার: কক্সবাজার সদরের বাস টার্মিনাল হতে খরুলিয়া বাজার পযর্ন্ত মহাসড়কে ১৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধন সম্পন্ন করেছে। এতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়াও বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠন ও সমবায় সমিতি অংশগ্রহন করে নিরাপদ সড়কের দাবিতে এবং গত ২৮ নভেম্বর মিনি ট্রাকের চাপায় স্কুলছাত্র ইফরাদুর রহমান ফাহাদ নিহত হওয়ার ঘটনার অবৈধ ডাম্পারের ড্রাইভার মালিকদের শাস্তির দাবিতে ১ ঘণ্টা সড়কের পাশে অবস্থান করেন।

আজ সোমবার সকাল ৯:৩০ মিনিটের সময় শুরু করে ১০:৩০ মিনিট পযর্ন্ত সড়কের পাশে সকল শিক্ষার্থী, শিক্ষকবৃন্দ, অভিভাবকসহ সাধারন মানুষের অবস্থান ছিল চোখে পড়ার মত। নিরাপদ সড়ক চাই, ঘাতক ডাম্পার মালিকদের বিচার চাই, ঘাতক চালকের অবিলম্বে গ্রেফতার চাই, নতুন সড়ক আইন বাস্তবায়ন চাই সহ শ্লোগান ধারন করা প্লেকার্ড নিয়ে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধনে অবস্থান করেছেন। ফাহাদের সহপাঠীদের একটাই দাবি, নিরাপদে চলবে গাড়ি, নিরাপদে ফিরবো বাড়ি।

আরো পড়ুন>>> যৌতুক মামলায় পুলিশ কর্মকর্তা কারাগারে

উক্ত মানববন্ধনে সরকারের চলমান সড়কের নতুন আইনের প্রশংসা করেন উপস্থিত সকলে। প্রতিটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে স্পীড ব্রেকার, ট্রাফিক পুলিশ জোরদার, মহাসড়কে বেপরোয়া গতির অবৈধ ঘাতক ডাম্পারের ড্রাইভার ও মালিকের শাস্তি দাবি করেছেন তারা। রেজিষ্ট্রেশনবিহীন যানবাহন বন্ধ করা। প্রশাসনের টোকেন বাণিজ্য বন্ধ করা। এবং অনতিবিলম্বে ঘাতক ডাম্পারের ড্রাইভার ও কোম্পানীকে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবি জোর দাবি জানিয়েছেন। গত ২৮ নভেম্বর দূর্ঘটনায় নিহত আবুল বশর ও ইফরাদুল আলম ফাহাদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন মানববন্ধনকারীরা।

বর্তমান সড়ক আইন বাস্তবায়ন ও দূর্ঘটনা এড়াতে বিভিন্ন দাবি নিয়ে বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল করিম, খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব জহিরুল হক, আইডিয়াল ইনস্টিটিউট অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, সম্প্রীতি যুব সমবায় সমিতির সকল নেতৃবৃন্দ, ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, বীর প্রতীক পুত্র শ্রমিক নেতা খোরশেদুল হক, আনন্দ ক্রীড়া সংস্থার উপদেষ্টা নুরুল আজিমসহ স্থানীয় অনেক মান্যগণ্য ব্যক্তিবর্গ। উক্ত মানববন্ধন মোক্তারকুল এলাকার দিদারুল আলমের সঞ্চালনায় সমাপ্তি ঘটে।

স্বাআলো/এসএ