চৌগাছায় নববধূ ধর্ষণের অভিযোগে দুই যুবক গ্রেপ্তার

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি: যশোরের চৌগাছায় এক নববধূ (১৮) ধর্ষণের অভিযোগে শহিদ আলী (৩২) ও আব্দুল করিম (৩৫) নামে দু’যুবককে গ্রেপ্তার করেছে চৌগাছা থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা নিজেই চৌগাছা থানায় মামলা করেছে।

সোমবার দিবাগত রাতে ধর্ষণের ঘটনা ঘটলেও মঙ্গলবার দুপুরের পর ধর্ষক ও তার সহযোগিকে পুলিশ আটকের পর বিষয়টি জানাজানি হয়।

ধর্ষিতার লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, চৌগাছা শহরের একটি গ্রামের বাসিন্দা ওই মেয়েটির একমাস আগে বিয়ে হয় উপজেলার স্বরূপদাহ একটি গ্রামে।বিয়ের পর থেকেই স্বামী ও শ্বাশুড়ি মেয়েটিকে নির্যাতন করতে থাকে।

নির্যাতনের এক পর্যায়ে সোমবার রাত আটটার দিকে মেয়েটি স্বামীর বাড়ি থেকে পালিয়ে বিলের (ধানক্ষেত) মধ্য দিয়ে চৌগাছা-মহেশপুর সড়কের হাজরাখানা মোড়ে শহিদ আলীর চায়ের দোকানের পাশে গিয়ে দাড়াই। তখন চায়ের দোকানি শহিদ আলী ফুসলিয়ে দোকানের পাশে মেহগনি বাগানে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর দোকানের পাশে থাকা আব্দুল করিমের বাড়িতে রাখে। সেখানে রাতে করিম আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জোর করে হাত দেয়।

এ অবস্থায় করিমের বাড়িতেই সারারাত থাকতে বাধ্য করে। পরে মঙ্গলবার সকাল ৭টায় বাবার বাড়িতে ফিরে বাবা-মাকে বিস্তারিত জানানোর পর থানায় মামলা করি।

চৌগাছা থানার ওসি রিফাত খান রাজীব বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন মামলার আসামিদের বুধবার দুপুরে আটক করে ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। একই সাথে ধর্ষিতা নববধূকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

স্বাআলো/আরবিএ