বলাৎকারে মক্তব শ্রেণির ছাত্র নিহত, মাদ্রাসার অধ্যক্ষসহ চার শিক্ষক আটক

জেলা প্রতিনিধি, ফরিদপুর : ফরিদপুরে চরভদ্রাসন উপজেলায় মাদ্রাসা শিক্ষকদের ‘বলাৎকারের’ শিকার হয়ে আবদুর রহমান (১০) নামে মক্তব শ্রেণির ছাত্র (১০) নিহত হয়েছে। আজ বুধবার ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। এ ঘটনায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আবদুর রহমান উপজেলার ডাঙ্গী গ্রামের জামিয়া ইসলামিয়া মারকাযুল উলুম মাদ্রাসার মক্তব শ্রেণির ছাত্র। সে সালথা উপজেলার সোনাপুর গ্রামের মাওলানা আবদুস সোবানের ছেলে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আজ বুধবার ভোররাতে শিশুটি মাদ্রাসার অজুখানায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে চরভদ্রাসন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার পর তাকে তাৎক্ষণিক ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপতালে পাঠানো হয়। তবে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। শিশুটির গুহ্যদ্বারে গুরুতর জখম রয়েছে বলে তার অভিভাবকদের জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক।

শিশুটি মৃত্যুর পর নিপীড়নের অভিযোগ পেয়ে চরভদ্রাসন থানার ওসি হারুন অর রশিদ ও সেকেন্ড অফিসার এসআই শহীদুল ইসলাম সরেজমিনে গিয়ে ওই মাদ্রাসাপ্রধানসহ চার শিক্ষক ও দুই ছাত্রকে আটক করে।

চরভদ্রাসন থানার ওসি হারুন অর রশিদ জানান, প্রকৃত দোষী খুঁজে বের করতে আপাতত মাদ্রাসার  অধ্যক্ষ মুফতি আবদস সবুর, শিক্ষক মাওলানা সায়েদুল ইসলাম, মাওলানা আসাদ হোসাইন, মাওলানা মুহতাসিম বিল্লাহসহ মাদ্রাসাছাত্র আব্দুর রহমান ও রবিউল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের খুঁজে বের করতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

স্বাআলো/ডিএম