মানুষের মাধ্যমেই ছড়াচ্ছে চীনের নতুন ভাইরাসটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চীনে রহস্যজনক ভাইরাসে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত চারজনের মৃত্যু হলো।

আজ মঙ্গলবার সকালেই এই ভাইরাসে আক্রান্ত একজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন কর্মকর্তারা।

কর্তৃপক্ষ বলছে, একজন থেকে অন্যজনের শরীরে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে। এই ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে এক চিকিৎসা কর্মীও রয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। চীনের বিভিন্ন স্থানে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দুই শতাধিক। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই সংখ্যা আরও বেশি। এর আগে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৭শ বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন বিশেষজ্ঞরা।

চীন ছাড়াও জাপান, থাইল্যান্ড এবং দক্ষিণ কোরিয়ায় এই ভাইরাসে আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। বেশ কিছু শারীরিক সমস্যা নিয়ে ৮৯ বছর বয়সী এক বয়স্ক ব্যক্তি গত ১৮ জানুয়ারি হাসপাতালে ভর্তি হন। ওইদিনই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে উহান পৌরসভা স্বাস্থ্য কমিশন।

আরো পড়ুন>>>প্রাণঘাতী ভাইরাস, সতর্কতা বাংলাদেশেও

গত ডিসেম্বরে কেন্দ্রীয় চীনের উহান শহরে এই ভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সামুদ্রিক খাবার বিক্রির একটি বাজার থেকে এই রোগ ছড়িয়ে পড়েছে।

চীনা সরকারের একটি বিশেষজ্ঞ দলের প্রধান জং ন্যানসান জানিয়েছেন, দেশের দক্ষিণাঞ্চলীয় গুয়াংডং প্রদেশে দুই ব্যক্তি তাদের পরিবারের সদস্যদের দ্বারা এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, হাসপাতালগুলোতে কর্মরত বেশ কয়েকজন কর্মীর শরীরে এই ভাইরাস শনাক্ত করা গেছে। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

চীনের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র জানিয়েছে, এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শরীরে প্রথমেই যে লক্ষণগুলো পাওয়া গেছে সেগুলো হলো, শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দি, কাশি। এ থেকে প্রথমেই মনে হতে পারে যে রোগী নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন। অনেকটা নিউমোনিয়ার মতোই এই ভাইরাসটি এক ধরনের করোনা ভাইরাস।

স্বাআলো/আরবিএ