বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আবাসিক হোটেলে নিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ

জেলা প্রতিনিধি, নোয়াখালী: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে তরুণ। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে ভুক্তভোগী পরিবারের মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত যুবক মনিরুল ইসলাম তারেক (১৮) নামের এক তরুণকে আটক করেছে পুলিশ।

পরে ভিকটিমের মা রাত সাড়ে দশটার দিকে ধর্ষক ও তার সহযোগী চরকাঁকড়ার নাহিদকে আসামি করে কোম্পানীগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, গত বুধবার আটককৃত তারেক ফাজিল প্রথম বর্ষের মাদ্রাসা ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফেনীর একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে তোলে। সেখানে ওই মেয়েকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে ওই ছাত্রীর পরিবার ঘটনাটি জানতে পেরে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি আরিফুর রহমান জানান, অভিযুক্ত তরুণের বিরুদ্ধে ধর্ষিতার পরিবার মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

আটককৃত তরুণকে শনিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে। এছাড়া এ ঘটনায় পলাতক আরোএক আসামিকে আটক করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

স্বাআলো/আরবিএ