দ্রুতগামী বাসের নিচে চারটি জীবনের অবসান

ময়মনসিংহ ব্যুরো: বয়স্ক ভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতার জন্য কার্ড করতে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা পরিষদে যাচ্ছিলেন কয়েকজন। সেজন্য উঠেছিলেন একটি অটোরিকশায়। পথে সেই অটোরিকশাটিকে চাপা দেয় একটি যাত্রীবাহী বাস। আর এতে মৃত্যু হয়েছে চারজনের।

বুধবার সকালে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের কলতাপাড়া চরশ্রীরামপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-উজান কাশিয়ারা গ্রামের ছাহারা বানু (৬২), লাল মিয়া (৫০), তাঁর মা রাবেয়া খাতুন (৭৫) ও সুতিরপাড়া গ্রামের অটো চালক রফিকুল ইসলাম (৫৫)। এদের মধ্যে লাল মিয়া শারীরিক প্রতিবন্ধী ছিলেন।

আরো পড়ুন>>>  চৌগাছায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্র নিহত

গৌরিপুর থানার ওসি বোরহান উদ্দিন জানান, বুধবার সকালে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের কলতাপাড়া চরশ্রীরামপুর এলাকায় ময়মনসিংহগামী একটি বাস উল্টোদিক থেকে আসা অটোরিকশাটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই রাবেয়া খাতুনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ও উদ্ধারকর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়। হাসপাতালে নেয়ার পর আরো তিনজনের মৃত্যু হয়। পুলিশ বাসটিকে আটক করেছে বলেও জানান ওসি।

নিহতদের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, বয়স্ক ভাতা এবং প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড করার জন্য গৌরীপুর উপজেলা পরিষদে যাচ্ছিলেন ছাহারা বানু, লাল মিয়া ও রাবেয়া খাতুন। কিন্তু তার আগেই দ্রুতগামী বাস কেড়ে নিল তাদের জীবন।

স্বাআলো/এসএ