চূড়ান্ত তালিকায় স্থান পাওয়া ৪৬৩ শিক্ষকের নিয়োগ স্থগিত

জেলা প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত তালিকায় স্থান পাওয়া আরো ৪৬৩ জনের নিয়োগ ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। এরা সবাই কিশোরগঞ্জ জেলার। রিটকারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট জামিউল হক ফয়সাল আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এক রিট আবেদনের শুনানিতে সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মাহমুদ হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। কিশোরগঞ্জ জেলা থেকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিল্পি রানীদাস সহ ১৪ জন এ রিটটি করেন।

আরো পড়ুন>>>  শিক্ষকদের জানুয়ারির এমপিওর চেক ব্যাংকে

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন- অ্যাডভোকেট জামিউল হক ফয়সাল।

তিনি বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা-২০১৩ এর ৭ ধারায় বলা হয়েছে, এই বিধিমালার অধীনে সরাসরি নিয়োগযোগ্য পদগুলোর ৬০ শতাংশ নারী, ২০ শতাংশ পোষ্য তথা কোটাপ্রার্থী এবং বাকি ২০ শতাংশ পুরুষ প্রার্থীদের দিয়ে পূরণ করা হবে। কিন্তু গত ২৪ ডিসেম্বর প্রাথমিকের ঘোষিত ফলের ক্ষেত্রে সেটা অনুসরণ করা হয়নি। তাই প্রার্থীরা হাইকোর্টে রিট করেন। রিটে বিবাদী করা হয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালককে (ডিজি)।

আরো পড়ুন>>>  এইচএসসি পাসেই করা যাবে শিক্ষক নিবন্ধনের আবেদন

রিটের শুনানিতে আদালত কিশোরগঞ্জ জেলার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ফলের ওপর ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দিয়ে রুল জারি করেন।

স্বাআলো/এসএ