বরগুনায় এসএসসি পরীক্ষার্থী ছাত্রীকে পিটিয়েছে  এক লম্পট

জেলা প্রতিনিধি, বরগুনা :  কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এসএসসি পরীক্ষার্থী মাকসুদাকে পিটিয়ে আহত করেছে ৪ সন্তানের জনক নিজাম উদ্দিন প্যাদা। ঘটনাটি ঘটেছে বরগুনার তালতলী উপজেলার নলবুনিয়ায় শুক্রবার রাতে। আহত মাকসুদাকে আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কড়াইবাড়িয়া টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের এসএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষার্থী দক্ষিণ নলবুনিয়া গ্রামের মাকসুদাকে  ৪ সন্তানের জনক লম্পট নিজাম উদ্দিন প্যাদা স্কুলে আসা যাওয়ার পথে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছে। ঘটনার দিন নলবুনিয়ায় তাকে একা পেয়ে আবারো কুপ্রস্তাব দেয়। এসময় মাকসুদা প্রতিবাদ করলে তাকে পিটিয়ে আহত করে। স্থাণীয়রা তাকে উদ্ধার করে বাড়ি পৌছে দেয়। আহতের পরিবার ঘটনাটি স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানালে রাতেই তাকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  ভর্তি করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী  সিরাজ হাওলাদার জানান, নিজাম প্যাদা একটি কাঠ দিয়ে মাকসুদাকে পিটিয়ে আহত করে। আহত অবস্থায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে বাড়ি পৌছে দেই।

মাকসুদার বোন খাদিজা বেগম বলেন, নিজাম উদ্দিন প্যাদা এলাকার একজন চিহ্নিত চরিত্রহীন । আমার বোনকে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে প্রায়ই কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছে। আমার বোন তাতে রাজি না হওয়ায় তাকে পিটিয়েছে। ৩-৪ বছর আগে সে আরো একটি মেয়ের সাথে একই আচরণ করায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। সে মামলায়  দীর্ঘ ৬-৭ মাস জেলে ছিল।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার নিখিল চন্দ্র বলেন, আহত মাকসুদার শরীরের বিভিন্ন্ স্থান ফুলে রয়েছে।

তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার  সেলিম মিঞা বলেন, ঘটনার কথা শুনে তালতলী থানার ওসিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেছি।

তালতলী থানার ওসি শেখ শাহিনুর রহমান বলেন, এখনো কোন অভিযোগ পাইনি।

স্বাআলো/কে