বাদাম ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে তিন জনের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি, কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যলয় থানা এলাকায় বাদাম ব্যবসায়ী হাবিল ব্যাপারীকে হত্যা মামলায় তিন জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী জনাকীর্ণ আদালতে দুই আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ঝিনাইদহ জেলার কুলবাড়িয়া গ্রামের রবিউল ইসলাম, একই গ্রামের গোলাম সরোয়ার ওরফে সরু (৪৫) এবং কোটচাঁদপুরের ব্রীজঘাট বাদাম বাজার এলাকার আনিসুজ্জামান ওরফে আনিছ (৫৭)। এদের মধ্যে রবিউল ইসলাম পলাতক রয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৫ অক্টোবর কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের পাশের ডোবা থেকে অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার কর হয়। তাকে গলায় তার পেঁচিয়ে হত্যা করা হয়। এই এঘটনায় ইবি থানার এসআই নজরুল ইসলাম অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ২৭ এপ্রিল আদালতে চার্জশিট দেয় পুলিশ।

সেখানে উল্লেখ করা হয়, আসামি আনিসুজ্জামান আনিছ, রবিউল ইসলাম ও গোলাম সরোয়ার সরু জামালপুর জেলার বাসিন্দা নিহত বাদাম ব্যবসায়ী হাবিল ব্যাপারীর এক লক্ষ ৫৪ হাজার টাকা মূল্যের বাদাম আত্মসাতের জন্য পূর্ব পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করেছেন।

কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট অনুপ কুমার নন্দী বলেন, দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে অভিযোগ সন্দেহাতীত প্রমানিত হওয়ায় হত্যা দায়ে তিনজনকে যাবজ্জীন কারাদন্ড ও প্রত্যেকের ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সাথে জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছর কারাদন্ড আদেশ দেয়া হয়েছে।

স্বাআলো/ডিএম