কিশোরীকে গণধর্ষণের দায়ে ৬ জনের যাবজ্জীবন

কিশোরীকে গণধর্ষণের দায়ে ৬ জনের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি, সিরাজগঞ্জ: সদর উপজেলায় কিশোরীকে দলবেঁধে ধর্ষণের দায়ে ছয়জনের যাবজ্জীবন দিয়েছে আদালত।
সিরাজগঞ্জের নারী ও শিশুনির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল ১-এর বিচারক ফজলে খোদা নাজির আজ বৃহস্পতিবার এ রায় ঘোষণা করেন।

একই সঙ্গে প্রত্যেক আসামিকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত। এ টাকা সাজাপ্রাপ্তদের সম্পত্তি বিক্রি করে কিশোরীকে দেয়ার জন্য জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

সাজাপ্রাপ্তরা হলো, সদর উপজেলার পাড়পাঁচিল গ্রামের রাসেল ওরফে রবিউল (২৫), একই গ্রামের নাজমুল (২৪), নুরু ওরফে নুর ইসলাম (২৬),মোমিন (৩৪), ভাটপিয়ারী গ্রামের সোহেল (২৬) ও একই গ্রামের রাজ্জাক (৪৪)।রায় ঘোষণার সময় চার আসামি আদালতে উপস্থিত ছিল। সোহেল ও মোমিন পলাতক রয়েছে।

ওই আদালতের পিপি শেখ আব্দুল হামিদ লাভলু জানান, ১৮ বছর বয়সী এক কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে যমুনা নদীর ভাটপিয়ার চরে যেতে বলেছিলেন রাসেল। ২০১৬ সালের ২০ এপ্রিল সেখানে গেলে রাসেল ও তার বন্ধুরা তাকে ধর্ষণ করে। কিশোরী জ্ঞান হারালে তারা তাকে আখক্ষেতে ফেলে পালিয়ে যায়। পরে তার জ্ঞান ফেরে। বাড়ি ফেরার পথে আরেকজন তাকে ধর্ষণ করে। পরে কিশোরীর ফোন পেয়ে স্বজনরা উদ্ধার করে। তাকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আরো পড়ুন>>>সিরাজগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার খুন

এ ঘটনায় কিশোরীর ভাই সদর থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে ওই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) বাসুদেব সিনহা ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন।

পিপি হামিদ বলেন, অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত ছয় আসামিকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন দিয়েছেন। পলাতক দুই আসামি আটকের দিন থেকে তাদের সাজা শুরু হবে।

স্বাআলো/আরবিএ