জাতিসংঘ প্রশ্ন তুললো ভারতের নাগরিকত্ব আইন নিয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিতর্কিত সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনে হস্তক্ষেপ চেয়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্ত হয়েছে জাতিসংঘ। সংস্থাটির মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার কার্যালয় বিতর্কিত আইনটিকে সাংবিধানিক বৈধতা মামলায় অন্তরভুক্ত করার আবেদন দাখিল করেছে।

জাতিসংঘের এমন পদক্ষেপে নজিরবিহীন ও এর মাধ্যমে মোদি সরকারের বিড়ম্বনা বেড়েছে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

সিএএ বিরোধী আন্দোলনে এমনিতেই বেশ চাপের মধ্যে রয়েছে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার। এর মধ্যেই সুপ্রিম কোর্টের মামলাগুলোয় তৃতীয় হওয়ার আবেদন দাখিল করে জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদ।

বিষয়টি জানার পরই তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ভারত। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় এবং এটি আইন প্রণয়নকারী সংসদের সার্বভৌম অধিকারের সঙ্গে সম্পৃক্ত।

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার বলেছেন, জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল বাখেলেটের কার্যালয় জেনেভায় অবস্থিত ভারতীয় স্থায়ী মিশনকে সোমবার সন্ধ্যায় আবেদনটির বিষয়ে অবহিত করেছে।

রবীশ কুমার বলেন, সিএএ ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, ভারতের সার্বভৌমত্বের সঙ্গে জড়িত কোন ইস্যুতে বিদেশি কোন হস্তক্ষেপের অধিকার নেই।

গত ডিসেম্বরে ভারতের সংসদে পাস হয় বিতর্কিত সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন। তারপর থেকে ভারত জুড়ে শুরু হয়েছে প্রতিবাদ।

স্বাআলো/আ