বরগুনায় ১২ লাখ মানুষের জন্য কোয়ারেন্টাইনের বেড মাত্র ১১টি

জেলা প্রতিনিধি, বরগুনা :  মরণব্যাধি করোনাভাইরাস প্রতিহত করতে আদা-জল খেয়ে নেমেছে পুরো বিশ্ব। কিন্তু এ ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো যাচ্ছে না কিছুতেই। এ ভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপকভাবে হতে পারে এমন আশঙ্কাকে মাথায় রেখে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার।

সেই প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বরগুনায় মাত্র ১১টি বেড প্রস্তুত করা হয়েছে। কোয়ারেন্টাইনের পাশাপাশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসার জন্য কিন্তু বরগুনায় বসবাসরত বাসিন্দাদের সংখ্যা ১২ লাখের অধিক। এই ১২ লাখ মানুষের জন্য মাত্র ১১টি বেডের কথা শুনে হতাশ বরগুনার মানুষ।

বরগুনার সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সন্দেহভাজন আক্রান্তদের কোয়ারেন্টাইনের পাশাপাশি করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা ও কোয়ারেন্টাইনের জন্য জেলার ছয়টি উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি করে বেড প্রস্তুত করা হয়েছে। এছাড়া বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে আটটি বেড প্রস্তুতি করা হয়েছে। যদিও হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনের জন্য প্রস্তুত বেডের সংখ্যা মাত্র পাঁচটি বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

আরো পড়ুন>>> বরগুনায় এসএসসি পরীক্ষার্থী ছাত্রীকে পিটিয়েছে  এক লম্পট

এ বিষয়ে বরগুনা জেলা নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন কামাল বলেন, পুরো বিশ্ব চেষ্টা করেও যেখানে করোনভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না, সেখানে আমাদের প্রস্তুত যথাযথ থাকা উচিত। বরগুনায় কোয়ারেন্টাইনের জন্য যে বেড প্রস্তুতি করা হয়েছে তা খুবই অপ্রতুল। তাই খুব দ্রুত কোয়ারেন্টাইনের জন্য বেডের সংখ্যা শতাধিকে উন্নতি করার অনুরোধ জানান তিনি।

এ বিষয়ে বরগুনার সিভিল সার্জন হুমায়ুন শাহিন খান বলেন, কোয়ারেন্টাইনের জন্য বরগুনায় এখন পর্যন্ত ১৩টি বেড প্রস্তুত রয়েছে।

স্বাআলো/এএম