শিক্ষিকা ফাহিমার কাটা হাত জোড়া লাগানো, চিকিৎসা ক্ষেত্রে বড় অর্জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, চিকিৎসা ক্ষেত্রে দেশ বহুদূর এগিয়ে গেছে। কেটে যাওয়া হাত জোড়া লাগানোর মতো জটিল একটি কাজও করতে পেরেছেন দেশের চিকিৎসকগণ। বাস দুর্ঘটনায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া হাতও যে জোড়া লাগতে পারে, তা আজ আমাদের দেশের চিকিৎসকগণ দেখিয়ে দিলেন। এটি গোটা চিকিৎসা ক্ষেত্রেই এক বিরাট সফলতা। এই সফলতা আমাদের সবাইকে গৌরবান্বিত করেছে।

বৃহস্পতবিার বিকেলে রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ণ ইনস্টিটিউটে রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের শিক্ষিকা ফাহিমার বাস দুর্ঘটনায় কেটে যাওয়া হাত জোড়া লাগানোর সফল চিকিৎসা ব্যবস্থা পরিদর্শনে এসে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

আরো পড়ুন>>> ভারত – বাংলাদেশের সব ফ্লাইট বাতিল

পরিদর্শন শেষে মিডিয়া ব্রিফিংকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের শিক্ষিকা ফাহিমা যাত্রাপথে দুই বাসের সংঘর্ষে হাত হারান। সেই হাত শেখ হাসিনা বার্ণ ইনস্টিটিউটের চিকিৎসকগণ সফলভাবে জোড়া লাগালেন। এখন হাতে রক্ত সঞ্চালন হচ্ছে এবং তিনি ভালো আছেন।

করোনাভাইরাসের চিকিৎসা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ডেঙ্গু চিকিৎসায় স্বাস্থ্যখাত সফল ছিল। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাতেও সফল হবে। ইতোমধ্যে চিকিৎসাধীন তিনজন করোনা রোগীর দুজনই সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন। যেকোনো সময়ই তারা ঘরে ফিরে যেতে পারবেন। করোনা নিয়ে এখন জনসচেতনতাই বেশি প্রয়োজন। করোনা নিয়ে আমাদের সর্বাত্মক প্রস্তুতি রয়েছে।

স্বাআলো/টিআই