নির্বাচন নিয়ে নতুন বার্তা দিলেন সিইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা: করোনাভাইরাসে প্রাদুর্ভাব দেশে কতখানি আক্রান্ত করে তার উপর ভিত্তি করে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ভোটসহ পাঁচ আসনের নির্বাচন স্থগিত করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা।

আজ মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীর কেক কেটে নির্বাচন ভবন থেকে যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

কেএম নূরুল হুদা বলেন, এখন পর্যন্ত আমরা নির্বাচন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিইনি। আরো দুই-একটা দিন দেখি। কারণ নির্বাচনের তো ব্যাপক প্রস্তুত শেষের দিকে।  প্রার্থীরা বলেছে তারা সাবধানে নির্বাচনি প্রচারণা করবে। কিন্তু নির্বাচন যেন বন্ধ না হয়ে যায়। তাদের অনুরোধ আছে। তারা যদি জনসমাগমের বিষয়টা এড়িয়ে চলে। আমরা বলেছি, যেন বিকল্পভাবে তারা ভোটারদের কাছে ভোট চায়, জনসমাগম না করে।

আরো পড়ুন>>> নির্বাচন বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়ে যা বললেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার

তিনি বলেন, এই দু’টোর পর (২১ মার্চ ও ২৯ মার্চের নির্বাচন) আর কোনো নির্বাচনই আমরা (করোনার প্রকোপের মধ্য) করবো না। ২১ মার্চের নির্বাচন করার চিন্তা আছে এখনও।  যদি পরিস্থিতি একেবারেই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়, তখন অবশ্যই আমরা বিবেচনা করব। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা চাচ্ছি নির্বাচনটা হয়ে যাক।

আগামী ২১ মার্চ ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩, বাগেরগাট-৪ আসনের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত। এছাড়া আগামী ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচন এবং বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

স্বাআলো/এএম