নামাজরত মাকে কুপিয়ে হত্যা করল ছেলে

জেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের রাজারহাটে মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলে নামাজরত মাকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজারহাট উপজেলার উমর মজিদ ইউনিয়নের উমর পন্থাবাড়ী এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরপরই ঘাতক মন্তাজুলকে (২৬) কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রাসহ পরিবারের লোকজন।

মন্তাজুলের ছোট ভাই মোস্তাফা কামাল জানান, তার বড় ভাই মন্তাজুল ৭-৮ বছর আগে থেকে মাদকাসক্ত ছিল। তবে তার আচরণ স্বাভাবিক ছিল না। প্রায়ই একে ওকে ধরে মারধর করতো। তার এই পাগলামির জন্য স্ত্রীর সাথে ৫ বছর আগে ছাড়াছাড়ি হয়।

তিনি আরো বলেন, শুক্রবার দুপুরে আমার মা মেহেরজান বেগম (৫০) ঘরের ভেতর যোহরের নামাজ পড়ছিলেন। এ সময় মাকে নামাজরত অবস্থায় মন্তাজুল ভাই কুড়াল দিয়ে শরীরে বারবার কোপালে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

নিহত মেহেরজান বেগমের স্বামী সোলায়মান একজন কৃষক। চার ভাই এক বোনের মধ্যে মন্তাজুল দ্বিতীয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রাজারহাট থানার ওসি কৃষ্ণ কুমার সরকার জানান, পরিবার থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, তাদের পরিবার ও স্থানীয় লোকজনের দাবি মানসিক ভারসাম্যহীন বিকারগ্রস্থ ছিল মন্তাজুল।

স্বাআলো/এসএ