ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, রাস্তাঘাট জনশূন্য

জেলা প্রতিনিধি, পটুয়াখালী: করোনার প্রভাবে ৫ এপ্রিল পর্যন্ত পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় সকল ফ্ল্যাক্সি লোডের দোকান বন্ধ থাকবে।। শুধু ফ্লেক্সি লোডের দোকান নয়, সকল ধরনের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান প্রশাসনের নির্দেশে বন্ধ রাখা হয়েছে। এখন শুনসান নিরবতা বিরাজ করছে গোটা শহর জুড়ে।  এছাড়া প্রশাসনের তরফ থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচলকারী সকল ধরনের যাত্রী পরিবহন নিষিদ্ধ ঘোষণা করায় রাস্তা ঘাটও ফাঁকা দেখা গেছে। শুধুমাত্র ফার্মেসি, কাচাঁ বাজারের কিছু দোকান খোলা থাকলেও ক্রেতার উপস্থিতি একবারেই শূণ্যের কোঠায়।

শাওন ফ্যাশনের সত্বাধিকারী বলেন, করোনাভাইরাসের প্রভাবে সারা দশের ন্যায় কলাপাড়া ব্যবসায়ী সমিতির নির্দেশে আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে।

পৌর শহরের দেবাশিষ মুখার্জী বলেন, কে করোনাভাইরাস বহন করছেন, তা কারোরই জানা নেই। যদি কারো শরীরে করোনাভাইরাস থাকে, তাহলে এ সময় তা সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যার কারণে জনস্বার্থের কথা চিন্তা করে দোকান বন্ধ করা হয়েছে। পরিস্থিতির উন্নতি হলে সকল কার্যক্রম আবার চালু করা হবে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লতিফা জান্নাতী বলেন, করোনার কারণে দুরপাল্লার সকল পরিবহন, অভ্যন্তরীণ রুটের যাত্রী পরিবহন, পৌর শহরে চলাচলকারী অটোরিক্সা, ইজিবাইক পরবর্তি নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

পৌর মেয়র মহিউদ্দিন বলেন, সদর রোড হয়ে নিউ মার্কেট পর্যন্ত সড়ক ও বিভিন্ন দোকানের শাটারে বিলিসিং যুক্ত পানি দিয়ে ধৌত করেন। সকাল থেকে পর্যন্ত ফগার মেশিন দিয়ে শহরের বিভিন্ন এলাকায় মশার ঔষধ দিয়ে ডেঙ্গু মুক্ত রাখতে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। এছাড়া এসময় তিনি সকলকে ঘরের ভিতরে থাকার জন্য বলেন এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকার কথা বলেন।

স্বাআলো/এসএ