ভারতে অবস্থান করা ১১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত

ডেস্ক রিপোর্ট: ভারতের দিল্লির নিজামউদ্দিনে তাবলিগের মারকাজ মসজিদে ইজতেমায় যোগ দেয়া ১১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। শুক্রবার ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা দেশটির সংবাদমাধ্যম ইকোনোমিক টাইমসকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইজতেমায় যোগ দেয়া বিদেশিদের মধ্যে ৯৬০ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদেরকে কালোতালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

তারা জানান, বিভিন্ন দেশ থেকে আসা এসব মানুষ এই মুহূর্তে ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে রয়েছেন। এদের মধ্যে ৩৭৯ জন ইন্দোনেশিয়ার, ১১০ জন বাংলাদেশের, ৬৩ জন মিয়ানমারের এবং ৩৩ জন শ্রীলঙ্কার নাগরিক রয়েছেন। তাদের সবার প্যাথলজি পরীক্ষায় কোভিড-১৯ পজিটিভ এসেছে। অর্থাৎ এরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

এছাড়া তাবলিগের ৭৭ কিরঘিজ, ৭৫ মালয়েশীয়, ৬৫ থাই ১২ ভিয়েতনামি, ৯ সৌদি ও তিন ফরাসি সাথীর ভিসা বাতিল করে তাদেরকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কিনা তা অবশ্য জানাননি কর্মকর্তারা।

১ মার্চ থেকে ১৫ মার্চ পর্যন্ত চলেছিল তাবলিগ জামাতের ইজতেমা। এর পরেও প্রায় ১০-১২ দিন ধরে নিজামউদ্দিন মসজিদে ছিলেন প্রায় দুই হাজার দেশি-বিদেশি সাথী। তাবলিগের এসব প্রতিনিধি এবং তাদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের মিলিয়ে ছয় শতাধিক ব্যক্তির কোভিড-১৯ পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।

বৃহস্পতিবারই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, এই বিদেশিদের ফেরত পাঠানোর পাশাপাশি আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। পাশাপাশি ভবিষ্যতে তাবলিগ জামাতের ইজতেমায় অংশগ্রহণ করতে চেয়ে ভিসার আবেদন করলে তাদের আর ভিসা দেয়া হবে না।

স্বাআলো/ডিএম