নারায়ণগঞ্জে চারজনের মৃত্যু, ১২০০ পরিবার লকডাউন

জেলা প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে আরো ১২ জন। এই নিয়ে নারায়ণগঞ্জেই করোনায় মৃত্যু হয়েছে চারজনের। আর আক্রান্ত ২৩ জন।

এদিকে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় জেলার পাঁচটি এলাকায় ১২ শতাধিক পরিবার লকডাউন করেছে প্রশাসন।

জেলা সিভিল সার্জন অফিস সুত্রে জানা গেছে, শহরের জামতলা হাজী ব্রাদাস রোড এলাকার ৬৭ বছর বয়সী এক ব্যক্তি ও শহরের দেওভোগ আখড়া এলাকায় ৬৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে। ওই রোগীরা জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে আইইডিসিআরের অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইমতিয়াজ বলেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১২ জন। করোনা সন্দেহভাজন ১২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

রবিবার নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার রসুলবাগ এলাকার এক নারী শ্বাসকষ্ট ও জ্বর নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গেলে তাকে কুর্মিটোলায় পাঠাতে বলা হয়। কিন্তু স্বজনরা তাকে নারায়ণগঞ্জ নিয়ে যান। পরে অবস্থার অবনতি হলে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। স্বজনেরা লাশ নিয়ে বন্দরের রসুলবাগ এলাকা দাফন করেন। পরবর্তীতে ওই নারীর নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

এর আগে শনিবার রাতে কুর্মিটোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এসব ঘটনায় বন্দর রসুলবাগ, শহরের নন্দীপাড়া, সদর উপজেলার কাশিপুর আমবাগান এলাকা ও পূর্ব লামাপাড়া এলাকা এবং শহরের হাজী ব্রাদাস রোর্ডের একটি পাঁচতলা বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

স্বাআলো/ডিএম