করোনার লক্ষণ নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে যুবকের মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ: চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলায় শরীরে করোনাভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চৌডালার পূর্বসাহেব গ্রামে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। এ ঘটনার পর চৌডালা লকডাউন করা হয়েছে।

মৃত যুবকের নাম মোজাম্মেল (৪৫) মোজাম্মেল মানিকগঞ্জ জেলার সিঙ্গাইর কৃষিকাজে (ধান কাটতে) গিয়েছিলেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় এই প্রথম করোনাভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে কারও মৃত্যুর ঘটনা ঘটল।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোমস্তাপুর সার্কেল) জাহিদুর রহমান ।

তিনি জানান, মোজাম্মেল মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলা থেকে সোমবার বেলা ১১টার দিকে বাড়িতে ফেরেন। মঙ্গলবার সকালে মরদেহ দাফনের জন্য ইউপি চেয়ারম্যানসহ তিনজনকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

এ জন্য পিপিই ও মরদেহ দাফনের সিকিউরিটি ব্যাগ সরবরাহ করা হলে সকাল ১০টায় স্থানীয় কমিটি তাকে দাফন করে। মৃত মোজাম্মেলের পরিবারের সদস্যদেরও আলাদা রাখা হয়েছে।

এ ছাড়া মোজাম্মেলের সঙ্গে আসা এরান ওরফে ইরান নামে অপর এক ব্যক্তিকে আলাদা রাখা হয়েছে। তবে তার শরীরে এখনও করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা দেয়নি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরো জানান, মোজাম্মেল বাড়িতে ফিরেই নিজেকে একটি ঘরে আবদ্ধ করে ফেলেন। মৃত্যুর আগে তিনি ঘর থেকে বের হননি।

একজন স্বাস্থ্যকর্মীর বরাত দিয়ে তিনি আরও জানান, মৃতের শরীরে জ্বর ও গলাব্যথা ছিল। তবে সর্দি বা শ্বাসকষ্ট ছিল না। উপজেলার সব প্রবেশ পথ ইতিমধ্যে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। খাদ্যশস্যবাহী পরিবহন ছাড়া সব ধরনের যানচলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার থেকে গোমস্তাপুর উপজেলাকে ও বিচ্ছিন্ন করা হবে।

মৃত ব্যক্তির রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. সারোয়ার জাহান।

এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় আজ থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ অটোবাইক শ্রমিক কল্যাণ সোসাইটি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি শাহজাহান আলী।

স্বালো/ডিএম