মসজিদে নামাজ পড়া নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, নিহত ১

জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে মসজিদে নামাজ পড়াকে কেন্দ্র করে বিবাদমান দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে সুজন শেখ (২৬) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত তিনজন।

সোমবার সকালে উপজেলার বাহাড়া পশ্চিমপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুজন শেখ ওই গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এলাকায় অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বাহাড়া পশ্চিমপাড়া গ্রামের মজিবর শেখের সঙ্গে ওই গ্রামের মতি মাতুব্বর ও ইব্রাহীম মাতুব্বরের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।

রবিবার মসজিদে এশার নামাজ পড়া নিয়ে মজিবর শেখের সঙ্গে মতি মাতুব্বর ও ইব্রাহীম মাতুব্বরের কথা কাটাকাটি হয়।
সোমবার ফজরের নামাজ পড়ার সময় মসজিদের মধ্যে ওই দুই পক্ষ আবারও তর্কবিতর্কে লিপ্ত হয়।

এ ঘটনার জের ধরে সকালে দুই পক্ষ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় সুজন শেখ ঘটনাস্থলেই নিহত হন। আহত হন আরও তিনজন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মুকসুদপুর থানার ওসি মির্জা আবুল কালাম আজাদ বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত। এখনও কোনো মামলা হয়নি।

স্বাআলো/এসএ